২০১৬ সালেই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন উন্মোচন করছে নোকিয়া

0
250

Nokiaবিশ্বব্যাপী মোবাইল ফোন ইন্ডাস্ট্রী শাসন করে বেড়ানো নোকিয়া আবারও স্বরূপে ফিরতে চলেছে। ফিনল্যান্ড ভিত্তিক স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি খুব শিগগিরই স্মার্টফোন ও ফিচার ফোন বাজারে ছাড়বে। নোকিয়ার পরবর্তী অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের রেন্ডার অনলাইনে বের হয়েছে তবে চীনা মিডিয়াগুলো সম্প্রতি প্রতিবেদনে জানায়, নোকিয়া স্মার্টফোন, ফিচার ফোন এবং ট্যাবলেটও বাজারে ছাড়বে।

নোকিয়া ব্রান্ডের স্মার্টফোনগুলো ২০১৬ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে বাজারে আসতে পারে। নোকিয়া বর্তমানে মাইক্রোসফটের সাথে অপ্রতিদ্বন্দিতামূলক চুক্তিতে আছে। এই চুক্তিই প্রতিষ্ঠানটিকে নিজস্ব হার্ডওয়্যার প্রোডাক্ট উন্মোচনে সীমাবদ্ধ করে দেয়। মাইক্রোসফট ২০১৪ সালে নোকিয়ার মোবাইল বিভাগ অধিগ্রহণ করে। অন্যদিকে মাইক্রোসফটও এর ফিচার ফোন ব্যবসা ফক্সকনের কাছে বিক্রি করে দেয়।

মাইক্রোসফট এবং নোকিয়ার মধ্যকার চুক্তি এ বছরের শেষের দিকে সমাপ্ত হবে। নোকিয়া চীনের জেনারেল ম্যানেজার মাইক ওয়াং বলেন, স্মার্টফোন ব্যবসায় আবারও প্রত্যাবর্তন করতে চলেছে নোকিয়া। নোকিয়ার নতুন ডিভাইসগুলো সাবেক নোকিয়া কর্মীদের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত ফিনিশ প্রতিষ্ঠান এইচএমডি গ্লোবাল প্রস্তুত করবে।

এইচএমডি গ্লোবাল বর্তমানে নোকিয়া ব্রান্ডের ডিভাইস বিক্রির বিশেষ লাইসেন্স ধারণ করছে। তাছাড়া ডিভাইস পোর্টফোলিও জোরদার করার জন্য নেটওয়ার্ক ব্যবসাও প্রতিষ্ঠা করছে নোকিয়া। নোকিয়া সম্প্রতি ১৬.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে অ্যালকাটেল-লুসেন্ট অধিগ্রহণ করে। তাছাড়া নোকিয়া ব্রান্ডের স্মার্টফোনগুলোর শক্তপোক্ত প্রচারণায় পেক্কা রানাতালাকে চীফ মার্কেটিং অফিসার হিসেবে নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে এইচএমডি গ্লোবাল। পেক্কা রানতালা সাবেক নোকিয়া কর্মী এবং জনপ্রিয় অ্যাঙ্গরি বার্ড ফ্রাঞ্চাইজির নির্মাতা রোভিও এন্টারটেইনমন্টের প্রধান নির্বাহী ছিলেন।

নোকিয়ার আসন্ন ডিভাইসগুলো প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব জেড লাঞ্ছারসহ অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলবে। অনলাইনে ফাঁস হওয়া তথ্য অনুযায়ী, ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসগুলোতে ৪জিবি র‌্যাম এবং স্ন্যাপড্রাগন ৮২০ প্রসেসর থাকবে।

তাছাড়া ফাঁস হওয়া ছবি অনুযায়ী, আসন্ন ডিভাইসের কেসিংগুলো নোকিয়ার ধর্ম অনুযায়ী বিভিন্ন রঙে আসবে। নোকিয়া ডিভাইসগুলো এর রঙিন ডিজাইন, ফ্ল্যাগশিপ বৈশিষ্ট্য এবং উন্নতমানের ক্যামেরার জন্য বিখ্যাত। এইচএমডি জানায়, নোকিয়ার নতুন ডিভাইসগুলোও এই ধারণার আলোকে তৈরি করা হচ্ছে।

সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here