১৮ বছর বয়সেই ব্রিটেনের কাউন্সিলর সুনামগঞ্জের শরিফাহ

0
74

ব্রিটেনের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন সুনামগঞ্জের শরিফাহ রহমান। মাত্র ১৮ বছর বয়সে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে তিনি রীতিমতো চমকে দিয়েছেন সবাইকে।

গেলো সপ্তাহে অনুষ্ঠিত ব্রিটেনের নর্থ ইস্ট ইংল্যান্ডের ডারলিংটন বার কাউন্সিলের উপ নির্বাচনে তিনি ৪৪ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার এ বিজয়ে উৎফুল্ল সেখানকার বাঙালি কমিউনিটির লোকজন।

শরিফাহ’র পৈত্রিক বাড়ি সুনামগঞ্জের বরমরা গ্রামে। জীবিকার তাগিদে বাবা লোকমান খান ব্রিটেনে পাড়ি জমিয়ে ছিলেন অনেক  আগেই। শরিফাহ’র জন্মও ব্রিটেনের ডালিংটন শহরে। বেড়ে ওঠাও সেখানে। সাত ভাইবোনের মধ্যে শরিফাহ সবার ছোট।

শরিফাহ রহমান স্থানীয় রেড হল ও লিংফিল্ড ওয়ার্ড থেকে লেবার পার্টির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন টোরি পার্টিও জোনাথন ডালস্টন।

এছাড়াও ছিলেন লিবারেল ডেমোক্রেটস দলের হ্যারি লংমুর, গ্রিন পার্টির মাইকেল ম্যাকটিমনি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কেভিন ব্রা।

নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর সবচেয়ে কমবয়সী এই কাউন্সিলরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন স্থানীয় এমপি জেনি চাপম্যান ও এন্ড্রু গাইন। ব্রিটেনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রথম এমপি রোশনারা আলীর অভিনন্দন ও  প্রশংসায়ও ভেসেছেন শরিফাহ।

মাত্র কয়েক মাস আগে শরিফাহ রহমান ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য দেখিয়ে উর্ত্তীণ হন। এই সাফল্যের কয়েক মাসের মধ্যেই তিনি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আরেক চমক দেখালেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here