১০ জেলায় গ্রামীণফোন-এয়ারটেলের নেটওয়ার্কে বাঁধা দিচ্ছে ভারত!

0
240

GP-Airtel-Indiaভারতীয় বেতার তরঙ্গ বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকা উত্তরাঞ্চলের ৯ জেলায় গ্রামীণফোন এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের ১টি জেলায় এয়ারটেলের নেটওয়ার্কে বাঁধা সৃষ্টি করছে। সমস্যা সমাধান করতে গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বাংলাদেশে ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রীংলার সাথে দেখা করে বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। শ্রীংলা জানিয়েছেন, আমরা এ বিষয়ে অফিসিয়াল লেটার পেলে তা ভারতের যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে সমাধানের জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হবে। বৈঠকে বিটিআরসি, গ্রামীণফোন ও এয়ারটেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে বিটিআরসির চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ জানিয়েছেন, ভারতের হাইকমিশনারের সাথে পরবর্তী আলাপ করে আগামী জুনে এ বিষয়ে সমাধান করার জন্য বাংলাদেশ থেকে ভারতে বিশেষজ্ঞ টিম পাঠানো হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, এটি জাতীয় পর্যায়ে আলোচনা করে দ্রুত সমাধান করা উচিৎ। আমরা ইতিমধ্যে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে এ বিষয়ে একটি চিঠি দিয়েছি। এর অংশ হিসেবে ভারতের সাথে এ বিষয়ে আলাপ করার জন্য টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে চিঠি দিয়েছে।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, আমরা বিষয়টি দ্রুত সমাধান করার চেষ্টা করছি। এটা নতুন কোন ইস্যু নয়; বিশ্বব্যাপী মোবাইল অপারেটররা এ ধরণের সমস্যার মুখোমুখি হয়ে থাকেন এবং এসব সমস্যা শুধু আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান হয়ে থাকে।

এর আগে বিটিআরসি ও অপারেটরদের সমন্বয়ে একটি বিশেষজ্ঞ টিম গত বছর ডিসেম্বরে আক্রান্ত জেলাগুলোতে অনুসন্ধান চালিয়ে এর সত্যতা পেয়েছে। তারা দেখতে পায় শিলিগুড়ি থেকে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর একটি এন্টেনা বাংলাদেশের নেটওয়ার্কে বাঁধা সৃষ্টি করছে। বিটিআরসি জানিয়েছে, উত্তরাঞ্চলের ৯ জেলায় সমস্যা শুরু হয়েছে ২০১৪ সালের শুরুর দিকে এবং এসব এলাকায় সমস্যা হচ্ছে শিলিগুড়ি ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর এন্টেনা থেকে। অন্যদিকে কুমিল্লার সীমান্ত এলাকায় সম্প্রতি এয়ারটেলের নেটওয়ার্কের সমস্যা শুরু হয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারতে আসামের মোবাইল অপারেটরদের চলমান নেটওয়ার্ক আপগ্রেশনের কারণে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকা উত্তরাঞ্চলের যে ৯ জেলায় গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক বাঁধার সৃষ্টি হচ্ছে সেগুলো হলো – দিনাজপুর, রংপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নওগাঁ, নীলফামারী, গাইবান্ধা, পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কুমিল্লা জেলায় এয়ারটেলের নেটওয়ার্কে বাঁধার সৃষ্টি হচ্ছে।