সৌদি আরবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

0
193

unnamed-10সৌদি আরব: সৌদি আরবের রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন উপলক্ষ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিদের নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর অর্ধনর্মিতের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচী শুরু করা হয় ।

দূতাবাস প্রাঙ্গনে নির্মিত অস্হায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন, ড. মোহাঃ নজরুল ইসলামসহ দূতাবাসের কর্মকর্তা, আওয়ামী পরিবার, বাংলা রাইর্টাস ফোরাম, বি,এনপি, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ ইন্টাঃ স্কুল, শ্যাডোসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এই প্রথম দূতাবাস প্রাঙ্গনে বাংলা রাইটার্স ফোরাম এবং স্বেচ্ছাসেবকলীগ রিয়াদ জেলা শাখা দুইটি প্যাভেলিয়ন নির্মান করে । প্যাভেলিয়ন দুইটি ফিতা কেটে উদ্ভোধন করেন, দূতাবাসের উপ মিশন প্রধান ড. মোঃ নজরুল ইসলাম। বাংলা রাইটার্স ফোরামের প্যাভেলিয়নে বিগত ৩৫/৪০ বছরে সৌদি আরবে প্রবাসী বাঙালি লেখকদের লেখা বিভিন্ন প্রকাশনা প্রর্দশিত হয়।

প্রদর্শনিতে স্হান পায় হাতে লেখা প্রকাশনা, রিয়াদ ডেইলির সাথে প্রকাশিত ‘বাংলা বিনোদন’, সত্যের আলো প্রবাস, মরুপলাশসহ গল্প, উপন্যাস, কবিতা, ছোট গল্প, প্রবন্ধ, সাময়িকী ও ইসলাম ধর্মীয় প্রকাশনা ।

প্রর্দশনির প্রধান উদ্যোক্তা কবি শাহজাহান চঞ্চল জানান, পুস্তক প্রদর্শনিটি ভাষার মাসের শেষ দিন পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে । স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্যাভেলিয়নে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্ম নিয়ে প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শিত হয় ।

রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ,পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বানী পাঠ করেন, দূতাবাসের ইকোনোমিক কাউন্সেলর ড. মোঃ আবুল হাসান, শ্রম সচিব আসাদুজ্জামান, সচিব শফিকুল ইসলাম, ২য় সচিব মোঃ বশির।

রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাসের উপ মিশন প্রধান ড. মোঃ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে কার্যালয় প্রধান মনিরুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, দূতাবাসের ডিফেন্স এর্টাচি মোঃ শাহ্‌ আলম, ডক্টর মোঃ রেজাউল করিম, শাহজাহান চঞ্চল, ডাঃ নিয়াজ মোহাম্মদ খান, সেলিম ভূঁইয়া, গোলাম মহিউদ্দিন, মোঃ জাকির হোসেন, কামরুজ্জামান কাজল, অধ্যক্ষ বজলুর রশিদ, রফিকুল হায়দার ভূঁইয়া, শহীদ মাদবর, ডাক্তার মোঃ আনিসুজ্জামান, মোজ্জাম্মেল হক, সবুর, শাহিদ, নাজিম উদ্দিন, আলী আজগর প্রমূখ। পবিত্র কোরআন তেলোয়াত, ভাষা শহীদ, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া ও মুনাজাত করেন, দূতাবাসের অনুবাদক সাদেক।