সেই পাকিস্তানকেই উড়িয়ে দিলেন সালমারা

0
6

স্পোর্টস ডেস্ক: পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজটা যাচ্ছেতাই গেছে বাংলাদেশ নারী দলের। চার ম্যাচের সিরিজে ৩-০তে হোয়াইটওয়াশ হয়েছেন সালমা-রুমানারা। তবে একমাত্র ওয়ানডেতে ভিন্ন চিত্র। দুর্দান্ত কামব্যাকে সফরকারীদের উড়িয়ে দিলেন তারা। পাকিস্তান নারী দলকে ৬ উইকেটে হারিয়েছেন লাল সবুজ জার্সিধারীরা।

৯৫ রানের টার্গেটে শুরুতেই হোঁচট খায় বাংলাদেশ। ইনিংসের প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরেন আয়েশা রহমান। খানিক পর রানআউটে কাটা পড়ে বিদায় নেন আরেক ওপেনার শারমিন আক্তার। সালমারা টি-টোয়েন্টি সিরিজে কোনো ম্যাচে ৯০ রান করতে না পারায় তখন এ রানও অসম্ভব মনে হয়!

তবে তা সহজ করে দেন ফারজানা হক ও রুমানা আহমেদ। তৃতীয় উইকেটে ৮১ রানের জুটি গড়েন তারা। ব্যক্তিগত ৩৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক রুমানা। কিছুক্ষণ পরে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন আরেক সেট ব্যাটসম্যান ফারজানা। তিনি থামেন হাফসেঞ্চুরি থেকে মাত্র ২ রান দূরে থাকতে।

হঠাৎ করে ২ উইকেট হারালেও পথচ্যুত হয়নি বাংলাদেশ। কারণ তখন জয় ছিল হাতছোঁয়া দূরত্বে। বাকি কাজটুকু সারেন লতা মন্ডল ও ফাহিমা খাতুন। ৬ উইকেট ও ২১ ওভার হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে নোঙর করেন রুমানা বাহিনী।

এর আগে সোমবার কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাটিং নেয় পাকিস্তান। শুরুটাও শুভ করেন অতিথিরা। মাত্র ১ উইকেট হারিয়েই স্কোর বোর্ডে ৫০ রান তোলেন তারা। এরপরই পথ হারায় পাকিস্তান। মাত্র ৯৪ রানেই অলআউট হয়ে যায় জাভেরিয়া খান বাহিনী।

পাকিস্তানকে এত অল্প রানে গুঁড়িয়ে দেয়ার নেপথ্য কারিগর খাদিজা তুল কুবরা। তার স্পিন বিষে নীল হয় সফরকারীরা। তিনি ২০ রান খরচায় একাই নেন ৬ উইকেট। ডানহাতি অফস্পিনারের এটি ক্যারিয়ারসেরা বোলিং। বাংলাদেশ নারী ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসেও সেরা বোলিং ফিগার।

১৫তম ওভারে নিজের হয়ে প্রথম আঘাত হানেন খাদিজা। বাকি সময় তার স্পিন ঘূর্ণিতে কুপোকাত হয়ে পড়ে পাকিস্তান। কোনোভাবেই ওর স্পিন ভেলকি পড়তে পারেননি প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা। শেষ পর্যন্ত ৯৪ রান তুলতেই গুটিয়ে যায় তারা। শেষ ৫ উইকেট হারায় মাত্র ১০ রানে।

৯.৫ ওভারে এক মেইডেনসহ ২০ রান খরচায় ৬ উইকেট নেন খাদিজা। এটি তার ক্যারিয়ারের প্রথম পাঁচ উইকেট। এছাড়া রুমানা আহমেদ ২, জাহানারা আলম ও লতা মন্ডল নেন ১টি করে উইকেট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here