সুইডেনে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫, পথচারী মাড়িয়ে দোকানে ট্রাক : ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও জার্মানির নিন্দা

0
103

swiden-killed_44166_1491573437আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে পথচারীদের মাড়িয়ে একটি ট্রাক দোকানে ঢুকে পড়ার ঘটনায় অন্তত ৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকাল ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। সুইডিশ প্রধানমন্ত্রী স্টিফান লফভেন তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘এটা দেশের ওপর সন্ত্রাসী হামলা।’ স্টকহোম পুলিশ কর্মকর্তারাও একে সন্ত্রাসী হামলা বলে মনে করছেন।

শহরটিতে পথচারীদের হাঁটার অন্যতম প্রধান সড়ক ড্রনিংয়েটেনে (কুইন স্টিট) এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, তারা একটি ট্রাক ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের জানালায় ধাক্কা মেরে ঢুকে পড়তে দেখেন। এরপরই মানুষজনকে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখেন তারা। ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে কাজ করা একজন প্রত্যক্ষদর্শী সুইডিশ জাতীয় প্রচারমাধ্যম এসভিটিকে বলেন, পুরো বিষয়টাই ঘোলাটে। কতজন আহত হয়েছেন জানি না। অনেকেই এ ঘটনায় স্তম্ভিত হয়ে গেছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, ঘটনাস্থলে গুলির শব্দও পাওয়া গেছে। যেখানে হামলার ঘটনা ঘটে সেই সড়কটিতে শহরের সবচেয়ে বেশি পথচারী যাতায়াত করেন।

আরেক প্রত্যক্ষদর্শী সংবাদমাধ্যমকে জানান, তারা একটি ট্রাককে দ্রুতগতিতে ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের দিকে যেতে দেখেন। এ সময় ট্রাকটি জনতার ভিড় মাড়িয়ে ছুটছিল। অনেকে ট্রাকের ধাক্কায় সড়কে লুটিয়ে পড়েন।
একজন পুলিশ কর্মকর্তা একটি রেডিওকে জানান, এ ঘটনার পর সুইডিশ সংসদসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

বিবিসির সংবাদদাতা কয়েকজন নিরাপত্তা কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, শহরের অন্য প্রান্তে গুলি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে দুই ঘটনার মধ্যে যোগসূত্র আছে কিনা তা এখনও জানা যায়নি। এ ঘটনার পর স্টকহোমের কেন্দ্রস্থলের একটি এলাকা ঘিরে রাখা হয়েছে। ঘটনাস্থলে গেছে পুলিশ ও জরুরি সেবাকর্মীরা। এলাকাটি খালি করে দেয়া হয়েছে।

সুইডিশ রাষ্ট্রীয় বেতার বেপরোয়া ট্রাক চালনার ঘটনায় তিনজন নিহত হওয়ার খবর দিয়েছে। সুইডিশ বেতারের এক সাংবাদিকও তিনজনকে নিহত হতে দেখার কথা জানিয়েছেন। তবে নিহতের সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে বলে জানান তিনি। তবে পুলিশ এ তথ্য এখনও নিশ্চিত করে জানায়নি।

সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী স্টিফান লফভেন বলেন, আমাদের দেশে যে হামলা হয়েছে অনেকগুলো বিষয় বিবেচনায় নিয়ে এটিকে সন্ত্রাসী হামলা বলে মনে করা হচ্ছে। এ হামলার পর তিনি দেশটির পশ্চিমাঞ্চল থেকে রাজধানীতে ফিরেছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র এরিক নিসেস।

ঘটনার পরপরই সেখানে যান পুলিশ ও জরুরি সেবাকর্মীরা। সুইডিশ পুলিশের মুখপাত্র লারস ভিলস্ট্রোম বলেন, এ ঘটনার জেরে স্টকহোমের পার্লামেন্ট সংলগ্ন সড়ক বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এলাকাটি খালি করে দেয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ঘটনার সময় সড়কে এ ধরনের বহু যাত্রীবাহী গাড়ি চলছিল। পরে ঘটনাস্থল ও তার আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে জার্মানি ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। জার্মানির চ্যান্সেলর এঞ্জেলা মার্কেলের মুখপাত্র বলেন, আমরা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে এবং সুইডেনের পাশে আছি। অন্যদিকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জেন ক্লাউড জাঙ্কার বলেন, এটা শুধু সুইডেনের ওপর নয়, আমাদের ইউনিয়নের সব রাষ্ট্রের ওপর হামলা।