‘সাইবার হামলার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে’

0
205

ঢাকা: সাইবার আক্রমণ মোকাবেলায় বিশ্বব্যাপী সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বুধবার বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে সাইবার হামলার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির উদ্ভাবন তথ্যের অবাধ প্রবাহকে যেমন সহজতর করেছে তেমনি এর ক্ষতিকর ব্যবহার জাতিসমূহকে ভাবিয়ে তুলছে। সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভে সাইবার আক্রমণ কেবল বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে নয়, আমি মনে করি, বিশ্বের সব আর্থিক ও ব্যাংক ব্যবস্থাপনাকে হুমকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে। সাইবার আক্রমণ এক ধরনের ভয়াবহ যুদ্ধ, যা রাষ্ট্রের গোপনীয়তা নষ্ট করে, আর্থিক ও ব্যাংক ব্যবস্থাপনা দুর্বল করে দেয় এবং ব্যক্তিগত তথ্য হুমকির মুখে পড়ে।

ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ) প্রতিবছর ১৭ মে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস পালন করে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘সামাজিক উন্নয়নে প্রয়োজন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি নির্ভর বাণিজ্যিক উদ্যোগ’।

রাষ্ট্রপতি বলেন, “আমাদের দেশে মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১১ কোটির ওপরে। দূর পল্লী থেকে শহরের অলিতে-গলিতে সব শ্রেণি-পেশার মানুষ আজ মোবাইল ব্যবহার করছে। উঠতি বয়সী তরুণ, শিক্ষার্থী ও যুবরাই মোবাইলের সর্বোচ্চ ব্যবহারকারী।বলতে গেলে তারা চব্বিশ ঘণ্টাই আজ মোবাইল নির্ভর হয়ে পড়েছে। প্রয়োজনীয় তথ্যের আদান-প্রদান ছাড়াও মাল্টিমিডিয়ার বদৌলতে গান, ভিডিও, ফেইসবুকিং, ইন্টারনেটে চ্যাটিংসহ নানা কাজে প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে মোবাইলের যথেচ্ছ ব্যবহার হচ্ছে।

অনেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করে নানা অপরাধেও জড়িয়ে পড়ছে- একথা উল্লেখ করে তথ্য-প্রযুক্তির অপব্যবহার সম্পর্কে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টির আহ্বান জানান তিনি।

এর আগে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকেট অবমুক্ত করেন রাষ্ট্রপতি। দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের অনলাইন রচনা প্রতিযোগিতার নয় বিজয়ীর মধ্যে পুরস্কার এবং সনদ বিতরণও করেন আবদুল হামিদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব ফয়জুর রহমান চৌধুরী

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের এই অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ইমরান আহমেদ এবং বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহ্জাহান মাহমুদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here