‘সরকার বিএনপিকে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিচ্ছে’

0
185

17103456_1828812914035859_7384933799027837701_nঢাকা: সরকার বিএনপিকে জোর করে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিচ্ছে দাবি করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, যদি বিএনপিকে নৈরাজ্যর পথে যেতে বাধ্য করা হয়, কঠোর অবস্থানে যেতে বাধ্য করা হয় তবে তার জন্য বর্তমান আওয়ামী সরকারই দ্বায়ী থাকবে।

আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী নাগরিক দল কর্তৃক আয়োজিত ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাজনৈতিক সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদি নাগরিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, আওয়ামী লীগের অনেক নেতাই বলেছেন বিএনপির নিবন্ধন বাতিল হবে। এর থেকে আর হালকা কথা হতে পারে না। বিএনপির নিবন্ধন বাতিল হলে এ দেশে কোনো দলেরই নিবন্ধন থাকবে না। বিএনপির নিবন্ধন বাতিল হলে যে নৈরাজ্যের সৃষ্টি হবে তার দ্বায়ভার আওয়ামী লীগকেই নিতে হবে ।

খালেদা জিয়া সহ বিএনপি নেতাদের জেলে রেখে আওয়ামী লীগ নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে বাইরে রেখে নির্বাচনের যে স্বপ্ন দেখছে আওয়ামী লীগ, তা তাদের দিবা স্বপ্ন। এই চেষ্টা থেকে বিরত না থাকলে জনগণের ক্ষোভ বেশিদিন চার দেয়ালের মধ্যে বন্ধ থাকবে না বলেও হুশিয়ারি দেন তিনি।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে নিয়ম রক্ষার নির্বাচনের নামে জনগণ এবং বিদেশীদের সাথে আওয়ামী লীগ প্রতারণা করেছে মন্তব্য করে তিনি আরো বলেন, আবারও ৫ জানুয়ারির মত নির্বাচন ব্যবস্থা তৈরি করবেন তা ভুল ভাবছেন। আগামী নির্বাচন নিয়ে যে ষড়যন্ত্র করছেন তা জনগণ জেনে গেছে।

দেশের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে তিনি বলেন, আজকে দেশে কোনো আইনশৃঙ্খলা নেই। প্রত্যেকটি মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সরকারের কোথাও কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। এর কারণ সরকারের নিজেদের কোনো ভিত্তি নেই। খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে এ সরকার সাজা দিতে পারবে না। এই সাজা জনগণ মানবে না। শেখ হাসিনার সাজা না হলে খালেদা জিয়ারও সাজা হবে না।

সংগঠনের সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ মো: ওমর ফারুক পীর সাহেবর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আজম খান, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ, খালেদা ইয়াসমীন, নিপুণ রায় চৌধুরী, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরানসহ দলের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here