সন্ত্রাসবাদকে খ্রিস্টান দেশের সঙ্গে মুসলিম দেশের লড়াই হিসেবে দেখা অনুচিত : ক্যামেরন

0
29

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: সন্ত্রাসবাদকে পশ্চিমা বিশ্বের খ্রিস্টান দেশের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম দেশের লড়াই হিসেবে দেখা অনুচিত বলে মনে করেন যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।

বৃহস্পতিবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতায় একটি বাণিজ্যসভায় যোগ দিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

ক্যামেরনের মতে, চরমপন্থায় বিশ্বাস করেন, এমন হাতেগোনা কিছু মানুষই রয়েছে সন্ত্রাসবাদের নেপথ্যে।

এ প্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমালোচনাতেও সরব হন ক্যামেরন। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্পের ভাষণ শুনলেই মনে হয় তিনি ব্যাপারটাকে মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে পশ্চিমা দুনিয়ার লড়াই বলে মনে করেন। এ ধারণা ভ্রান্ত। আমার মনে হয় যারা ইসলামের অপব্যাখ্যা করছেন, এটি তাদের বিরুদ্ধে মতাদর্শগত লড়াই।

বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিমপ্রধান দেশে গৃহযুদ্ধের মতো পরিস্থিতি কেন তৈরি হল তারও একটি ব্যাখ্যা দিয়েছেন ক্যামেরন।

তার মতে, ওই সব দেশের বেশিরভাগ মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মীয় আচার-আচরণ পালন করতে সচেষ্ট। কিন্তু অল্পসংখ্যক মানুষ ধর্মকে বিকৃতভাবে ব্যাখ্যা করছেন। বাকিদের মধ্যেও সঞ্চারিত হচ্ছে সেই মনোভাব। এ অংশটিকে খুঁজে বের করাই মূল কাজ বলে মনে করেন ক্যামেরন।

এ পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে যে পারস্পরিক সমন্বয়ই সবচেয়ে বড় বিষয় হতে চলেছে, তা তুলে ধরে যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত ও যুক্তরাজ্যের মতো দেশে বহুত্ববাদী সংস্কৃতি আছে, বিভিন্ন ধর্মের সহাবস্থানও আছে। তাই আগামী দিনে নিজেদের মধ্যে সমন্বয় রেখেই পথ চলতে হবে আমাদের।

অনুষ্ঠানে আলোচনায় উঠে আসে ইরাক প্রসঙ্গ। ক্যামেরন মনে করেন, ইরাক এমন একটি দেশ যেখানে জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএসকে মদদ দেয়া হয়। সেখানে জঙ্গি প্রশিক্ষণ দিয়ে কিছু মানুষকে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানো হয়। কাউকে আবার দেওয়া হয় সামাজিকমাধ্যমে বিদ্বেষ ছড়ানোর কাজ।

তবে এর বাইরে ইরাকে এমন অনেক মানুষ আছে যারা শান্তি চায়। তাদের সামনে রেখেই সন্ত্রাসবাদ পরাজিত করা সম্ভব বলে আশাবাদ জানান ক্যামেরন। সূত্র : এনডিটিভি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here