সংশয়ে ট্রাম-কিম বৈঠক

0
19

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের মধ্যে ১২ জুন সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠেয় বহু প্রতীক্ষিত বৈঠকটি নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

উত্তর কোরিয়া বলেছে, আমেরিকা যদি পারমাণবিক অস্ত্র নষ্ট করে ফেলার জন্য তাদের ওপর চাপ দেয় তাহলে তারা ট্রাম্পের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠকে বসবে না। খবর বিবিসির।

এক বিবৃতিতে উত্তর কোরিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী কিম গিয়ে-গুয়ান আমেরিকার বিরুদ্ধে ‘অশুভ অভিপ্রায়ের’ এবং দায়িত্বহীন বিবৃতি দেয়ার অভিযোগ করেছেন।

তিনি এ জন্য সরাসরি দায়ী করেছেন মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনকে। তিনি বলেন, আমরা খোলাখুলিই বলছি- আমরা তাকে একজন জঘন্য মানুষ বলে মনে করি।

উত্তর কোরিয়া বহুদিন থেকেই বলে আসছে, রাষ্ট্র হিসেবে টিকে থাকার জন্য তাদের পারমাণবিক অস্ত্র থাকা অত্যাবশ্যক। এখন দেশটি তাদের সেই দাবি আরও স্পষ্ট করছে।

কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করার ব্যাপারে উত্তর কোরিয়া প্রতিশ্রুতি দেয়ার পর কিম জং উনের সঙ্গে ট্রাম্পের শীর্ষ বৈঠকের ঐতিহাসিক সম্মতি এসেছিল।

উত্তর কোরিয়া বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলোকে আমন্ত্রণও জানিয়েছিল- এ মাসের শেষের দিকে তাদের পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার স্থান ভেঙে ফেলার ঘটনা প্রত্যক্ষ করার জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here