শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদি উদ্বোধন করবেন আজ

0
11

ঢাকা: আখাউড়া-আগরতলা ও কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল প্রকল্প দুটির নির্মাণ কাজ শুরু হচ্ছে আজ। বিকাল পৌনে ৫টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করবেন।

গণভবন থেকে শেখ হাসিনা ও দিল্লি থেকে নরেন্দ্র মোদি উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। গণভবনে এ সময় উপস্থিত থাকবেন রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক, রেল সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন।

অপরদিকে আখাউড়া ও শাহবাজপুর রেলওয়ে স্টেশনে ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেবেন রেলওয়ে মহাপরিচালক, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাসহ রেলওয়ে কর্মকর্তারা। এ উপলক্ষে স্টেশন দুটিতে সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।

রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক যুগান্তরকে জানান, দুটি প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে সরাসরি ভারতের সঙ্গে ট্রেন চলাচল শুরু হবে। ২০১৩ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ স্থাপনে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। রেলওয়ে মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন বলেন, প্রকল্প দুটির বাস্তবায়নে বাংলাদেশ রেল যোগাযোগে নতুন মাত্রা যোগ হবে।

আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ : এ প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে আখাউড়া স্টেশনের ৩নং প্লাটফর্মে সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।

ভিডিও কনফারেন্স ও সুধী সমাবেশে বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী-এমপি, রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রধান, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। আখাউড়া রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগ জানায়, আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০১৯ সালে।

এ রেলপথ বাস্তবায়ন হলে চট্টগ্রাম-সিলেটের পাশাপাশি ঢাকা-কলকাতার সঙ্গেও রেল যোগাযোগ সহজ হবে। ১৫ কিলোমিটার এ রেলপথে স্টেশন হবে চারটি।

কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ : মৌলভীবাজারের এ রেলপথটি ২০০২ সালের ৭ জুলাই বন্ধ করে দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। ১৯১০ সালে চালু হওয়া ঐতিহাসিক রেলপথটি আবার চালু করতে প্রকল্প হাতে নেয় বাংলাদেশ রেলওয়ে। ৫৩ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ রেলপথটি নির্মাণে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৬৭৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ উদ্বোধন : এদিকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে সহযোগিতার অংশ হিসেবে বাংলাদেশের জাতীয় গ্রিডে ভারত থেকে আরও ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হচ্ছে।

দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর গ্রিড থেকে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার আন্তঃবিদ্যুৎ সংযোগ গ্রিডে এ বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেন। সূত্র জানায়, নতুন ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের মধ্যে ৩০০ মেগাওয়াট আসবে ভারতের সরকারি খাত ‘ন্যাশনাল থার্মাল পাওয়ার প্ল্যান্ট’ থেকে।

২০০ মেগাওয়াট আসবে সে দেশের বেসরকারি খাত ‘পাওয়ার ট্রেডিং করপোরেশন’ থেকে। সরকারি সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে ভারত থেকে আমদানি করা বিদ্যুতের পরিমাণ ৬৬০ মেগাওয়াটের মধ্যে ৫০০ মেগাওয়াট পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর থেকে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় যুক্ত হয়েছে। এ ছাড়া ১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য থেকে কুমিল্লায় বিদ্যুৎ গ্রিডে যুক্ত হয়েছে।

LEAVE A REPLY