শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকা আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিহত ১

0
108
হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় শুক্রবার রাতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নিহত যুবক (ইনসেটে)। ঘটনাস্থল লাল-কালো রঙের কাপড়ে ঘিরে আইনশৃংখলা বাহিনীর সতর্ক অবস্থান
হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় শুক্রবার রাতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নিহত যুবক (ইনসেটে)। ঘটনাস্থল লাল-কালো রঙের কাপড়ে ঘিরে আইনশৃংখলা বাহিনীর সতর্ক অবস্থান

আইএসের দায় স্বীকার * শক্তিশালী আরেকটি বোমা নিষ্ক্রিয় করার সময় কেঁপে ওঠে পুরো এলাকা, আহত হন চারজন

ঢাকা: র‌্যাব ব্যারাকে হামলার এক সপ্তাহের মাথায় কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে রাজধানীর হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সামনে গোলচত্বর এলাকায় ‘আত্মঘাতী বিস্ফোরণে’ এক যুবক নিহত হয়েছে। রাত ১টায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় নিহতের পরিচয় পাওয়া যায়নি। শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই ওই যুবকের দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়। তার শরীরে সুইসাইডাল ভেস্ট বাঁধা ছিল কিনা তা তদন্ত করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) দায় স্বীকার করেছে। আইএস পরিচালিত আমাক নিউজ এজেন্সির বরাত দিয়ে সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ এ কথা জানিয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, এ ঘটনায় নিহত যুবক কোনো জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে তাদের ধারণা নিহত যুবক কোনো জঙ্গি সংগঠনের হয়ে কাজ করছিল। কোনো ব্যক্তি বা আস্তানায় বোমা পৌঁছে দেয়ার কাজে হয়তো ওই যুবক নিয়োজিত ছিল। নিহত যুবকের কাঁধে একটি ব্যাগ এবং হাতে একটি ট্রুলি ছিল। ট্রুলি ও ব্যাগ থেকে দুটি শক্তিশালী বোমা উদ্ধার করা হয়। পরে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের বোম্ব ডিসপোজাল টিম বোমা দুটি নিষ্ক্রিয় করে। এ সময়  কেঁপে ওঠে পুরো এলাকা। বোমার স্পি­ন্টারে পুলিশ কনস্টেবল আলমগীর হোসেন ও পথচারী মজনু আহত হন। অসতর্কতার কারণে দু’জন পথচারী সামান্য আহত হয়েছেন।

মজনু যুগান্তরকে বলেন, দ্বিতীয় বোমাটি নিষ্ক্রিয় করার সময় তিনি আহত হন। তিনি পাবনা থেকে ঢাকায় এসেছেন। খিলক্ষেত থেকে আশকোনার দিকে যাচ্ছিলেন তিনি। কথা বলার সময় তার শরীর থেকে রক্ত ঝরছিল। একপর্যায়ে তিনি বলেন, তার কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে, খারাপ লাগছে। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ সদস্যরা ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।

আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়াসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পরে রাত সাড়ে ৯টার পর ডিএমপি কমিশনার ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের জানান, এটি আত্মঘাতী হামলার ঘটনা নয়। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে নিহত যুবক ছিল বোমা বহনকারী। বোমা বহনকারী যেদিক দিয়ে যাচ্ছিল সেদিকে চেকপোস্ট থাকায় হয়তো সে অতিরিক্ত সতর্ক হয়ে শরীরের থাকা বোমা লুকানোর চেষ্টা করছিল। এ সময় তা বিস্ফোরিত হয়। এ ঘটনায় বোমা বহনকারী ব্যক্তি ছাড়া কেউ হতাহত হননি। নিজের কাছে থাকা বোমা বিস্ফোরণ হলে ওই ব্যক্তি নিহত হয়। তবে নিহত ব্যক্তি ‘আত্মঘাতী হামলাকারী’ বলে তাৎক্ষণিকভাবে জানিয়েছিলেন পুলিশের এক কর্মকর্তা। ঘটনার পর সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটের সদস্যরা গিয়ে আলামত সংগ্রহ করেন। সেখানে যান বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যসহ মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তারা। ঘটনাস্থলকে লাল ও কালো কাপড় দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্য ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না।

রাত ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, বিমানবন্দর গোলচত্বরের দক্ষিণ-পূর্ব পাশে আনুমানিক ২৮ বছর বয়সী এক যুবকের লাশ পড়ে আছে। পাশেই পুলিশের বিভিন্ন শাখার কয়েকটি কার্যালয় রয়েছে। এসবের মধ্যে আছে এয়ারপোর্ট পুলিশ বক্স, পেট্রোল ইন্সপেক্টরের (পিআই) কার্যালয়, ট্রাফিক উত্তরা বিভাগের সহকারী কমিশনারের কার্যালয় ও বিমানবন্দর ট্রাফিক পুলিশ বক্স। ট্রাফিক উত্তরা বিভাগের সহকারী কমিশনারের কার্যালয়ের ঠিক সামনেই উপুড় হয়ে পড়ে আছে লাশটি। যুবকের পরনে জিন্সের প্যান্ট ও খয়েরি রঙের গেঞ্জি।

প্রত্যক্ষদর্শী কামরুল হাসান বলেন, ‘সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে হঠাৎ একটি বিস্ফোরণ ঘটে। আমি মনে করেছিলাম, কোনো গাড়ির টায়ার ফেটেছে। পরে তাকিয়ে দেখি সেখানে এক যুবক পড়ে আছে। তার পেট থেকে নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে গেছে।’ তিনি জানান, ঘটনার সময় আশপাশে পুলিশ ছিল। ছিল পুলিশের গাড়িও। কিন্তু অন্য কেউ হতাহত হননি।

স্থানীয় খাবার হোটেলের মালিক মো. ইলিয়াস জানান, ঘটনার বেশ কিছুক্ষণ আগে থেকেই এক যুবক সেখানে ঘোরাফেরা করছিল। কেউ বুঝতে পারেনি যে তার শরীরে বোমা আছে। কোনো পুলিশ সদস্য তার শরীর তল্লাশিও করেনি বলে তিনি জানান।

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, বিমানবন্দরে হামলার পরিকল্পনা ছিল না ওই ব্যক্তির। কারণ তিনি ট্রাফিক পুলিশ বক্সের পূর্ব দিক থেকে হেঁটে মূল সড়কে আসছিলেন। বিমানবন্দরে হামলার পরিকল্পনা থাকলে তিনি ওই পথে যেতেন না।

পুলিশকে লক্ষ্য করে আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা ছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা থাকলে হামলাকারী দ্রুত পুলিশ বক্সে থাকা পুলিশ সদস্যদের কাছে চলে যেতেন। ওই যুবক সেটি করেনি। ওই যুবক কোথা থেকে এসেছে, কার কাছে যাচ্ছিল এবং তার পরিচয়ের বিষয়ে কমিশনার বলেন, এটি তদন্ত করে বলা সম্ভব হবে।

আশকোনায় র‌্যাব ক্যাম্পে হামলা এবং এ ঘটনার মধ্যে কোনো সম্পর্ক রয়েছে কিনা জানতে চাইলে ডিএমপি কমিশনার বলেন, দুটি ঘটনার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। র‌্যাব ক্যাম্পে যে ঘটনা ঘটেছে সেটি দুর্ঘটনা ছিল না। এ ঘটনাটি দুর্ঘটনা বলেই মনে হচ্ছে। ঘটনার পর বিমানবন্দর এলাকা তল্লাশি করা হচ্ছে বলেও জানান ডিএমপি কমিশনার।

১৭ মার্চ দুপুরে রাজধানীর বিমানবন্দর সংলগ্ন প্রস্তাবিত র‌্যাব সদর দফতরের অস্থায়ী ব্যারাকে দেয়াল টপকে ঢুকে পড়ে এক জঙ্গি। তাকে জিজ্ঞাসা করতেই সঙ্গে থাকা সুইসাইডাল ভেস্টের বিস্ফোরণ ঘটায়। বোমার আঘাতে মুহূর্তেই ছিন্নভিন্ন হয় ওই আত্মঘাতী জঙ্গির দেহ। এর আগে ১৬ মার্চ চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে জঙ্গি আস্তানায় অপারেশনে নারী-শিশুসহ পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

আইএসের দায় স্বীকার : শুক্রবার রাতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে একজন নিহত হওয়ার ঘটনার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি সংগঠন আইএস। এ ঘটনাকে আইএস আত্মঘাতী হামলা বলেও দাবি করে। আইএস পরিচালিত আমাক নিউজ এজেন্সির বরাত দিয়ে সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ একথা জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন জঙ্গিগোষ্ঠীর ইন্টারনেটভিত্তিক তৎপরতা নজরদারি করে থাকে।

আমাক নিউজ এজেন্সিতে দাবি করা হয়, ‘বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে পুলিশের একটি তল্লাশি চৌকি লক্ষ্য করে এ হামলা হয়েছে।’

বিস্ফোরণের পর বিমানবন্দরে বাড়তি সতর্কতা : পুলিশ বক্সের কাছে তল্লাশি চৌকিতে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে এক যুবক নিহতের পর শুক্রবার রাতে বিমানবন্দর এলাকার নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। বিমানবন্দরের নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে তারা বলছেন, এ ঘটনা বিমানবন্দরকে কোনোভাবেই প্রভাবিত করেনি। বিমানবন্দর পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম জানান, আগের নিয়মেই বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে বিমানবন্দর এলাকায় প্রবেশে তল্লাশি বাড়ানো হয়েছে। বিমানবন্দরের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাশেদা সুলতানা বলেন, নিরাপত্তার স্বার্থে বিমানবন্দরের প্রতিটি পয়েন্টে সতর্ক নজরদারি ও তল্লাশি বাড়ানো হয়েছে। যাত্রী ছাড়া দর্শনার্থী যাতে বিমানবন্দরের ভেতরে কম প্রবেশ করেন সে চেষ্টা করা হচ্ছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় এক আত্মঘাতী হামলাকারী বোমা বহন করে পুলিশ চেকপোস্টের কাছে বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে বিস্ফোরক বহনকারী যুবক নিহত হয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের সতর্কতা : আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পর নিজ দেশের নাগরিকদের বাংলাদেশ ভ্রমণে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। মার্কিন দূতাবাস শুক্রবার রাতে এক টুইট বার্তায় এ সতর্কতা জারি করে। এতে বলা হয়, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটেছে। তাই বাংলাদেশে বসবাসরত মার্কিন নাগরিকদের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোর খবর পর্যবেক্ষণের পরামর্শ দেয়া হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here