‘শাস্তি হলে খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তা বাড়বে’

0
220

1459833687410-1ঢাকা: ‘আদালতের রায়ে শাস্তি হলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন বিএনপি নির্বাচনে আসবে না’- আওয়ামী নেতাদের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ বলেছেন, মিথ্যা মামলায় বিএনপি নেত্রীর শাস্তি হলে দেশে তার জনপ্রিয়তা আরো বৃদ্ধি পাবে।

শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত ‘পিলখানা ট্রাজেডি: সার্বভৌমত্ব ও জাতীয় নিরাপত্তা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাদের কথা শুনে মনে হয় তারা কিছুই বোঝেন না। এখনো রায় হয়নি। রায়ে খালেদা জিয়ার শাস্তি হলেই তো তিনি রাজনীতির বাইরে চলে যাবেন না। রায় হলে আমরা জামিনের জন্য আপিল করবো। তিন বছরের সাজা হলেও তিনি জামিন পাবেন। নির্বাচনে প্রতিদন্দিতা না করলেও দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেবেন।

বিএনপি একসাথে নির্বাচন ও আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে জানিয়ে মওদুদ বলেন, দেশে আজ গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। তাই জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে প্রয়োজনে আমরা কঠিন আন্দোলনে নামবো।

তিনি বলেন, সরকার যদি সত্যিকার প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন চায় তাহলে বিএনপির সকল নেতা কর্মীদের উপর থাকা মিথ্যা মামলা উঠিয়ে নেওয়া উচিৎ।

২০০৯ সালের বিডিয়ার বিদ্রোহের ঘটনাকে ‘আওয়ামী লীগের সামগ্রিক ষড়যন্ত্রের অংশ’ মন্তব্য করে আলোচনা সভার প্রধান বক্তা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, যে বিদ্রোহ নিমিষে দমন করা যায় তা দমন না করে বিদ্রোহীদের সাথে আলোচনা করে সময়ক্ষেপণ করার ফলে ৫৭ জন বীরকে জীবন দিতে হয়েছে।

আওয়ামী লীগের নেতারা এই ঘটনার সাথে জড়িত মন্তব্য করে রিজভী বলেন, জড়িত আওয়ামী নেতাদের বাদ দিয়ে নির্দোষ নাসির উদ্দিন পিন্টুকে দায়ী করা হয়েছে। পিন্টুকে যাবতজীবন কারাদণ্ড দিয়ে তিলে তিলে হত্যা করা হয়েছে।

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি ও বিদ্যুৎ মন্ত্রীর বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকারের তো জনগণের কাছে জবাবদিহিতা করতে হয় না। তারা জনগণকে ত্যাজ্য করেছে।

আওয়ামী লীগকে মিথ্যাচারের রাজনীতি বন্ধ করার আহবান জানিয়ে রিজভী বলেন, কানাডার আদালতে যেখানে বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল বলা হয়েছে সেখানে আওয়ামী লীগ সম্পর্কেও একই মন্তব্য করা হয়েছে। তারা নিজেদেরটা না বলে শুধু বিএনপির কথা বলে।

শহীদ মিনারে খালেদা জিয়া যে স্থানে দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতারাসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও একই স্থানে দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি দিয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সারা দেশে খালেদা জিয়া সম্পর্কে শহীদ বেদী মাড়ানো নিয়ে যেসব কথা বলছেন, তা একজন রাজনৈতিক পরিবারের মেয়ে হিসেবে তিনি বলতে পারেন না।

বাংলাদেশ লেবার পার্টির সভাপতি ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশ-দলীয় জোটের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here