‘শতাব্দীর জঘন্য কশাঘাত’ আখ্যা দিয়ে ট্রাম্পের পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান

0
93

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: জেরুজালেমকে দখলদার ইসরাইলের রাজধানী স্বীকৃতি দেয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনা করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

তিনি বলেন, জেরুজালেম রাজনৈতিকভাবে আমাদের রাজধানী। ধর্মীয়ভাবে এ শহর আমাদের রাজধানী এবং ভৌগোলিকভাবেও এটি আমাদেরই রাজধানী। কিন্তু ট্রাম্পের এক টুইটের কারণে এটি আমাদের মানচিত্র থেকে মুছে ফেলা হয়েছে।

কাজেই আমরা ট্রাম্পকে না বলছি। আমরা কখনই তার পরিকল্পনা গ্রহণ করব না। আমরা বলছি- ট্রাম্পের শান্তি পরিকল্পনা ‘শতাব্দীর জঘন্য কশাঘাত’, উল্লেখ করেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণার পরও ট্রাম্প ইসরাইল-ফিলিস্তিনের মধ্যে একটি ‘চূড়ান্ত সমঝোতা’য় পৌঁছাবেন বলে বাগাড়ম্বর করে আসছিলেন।

কিন্তু রোববার থেকে শুরু হওয়া ফিলিস্তিন মুক্তি সংস্থার (পিএলও) দুদিনব্যাপী কেন্দ্রীয় কাউন্সিলসভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাহমুদ আব্বাস যে কঠোর অবস্থান ঘোষণা করলেন, তাতে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতাকারী ভূমিকা প্রত্যাখ্যাত হয়ে গেল।

এ সভায় আব্বাস তাৎপর্যপূর্ণভাবে উল্লেখ করেন, ১৯৯০-এর দশকে স্বাক্ষরিত অসলো চুক্তি ‘অবসান’ ঘটিয়েছে ইসরাইল।

অসলো চুক্তির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ফিলিস্তিন-ইসরাইলের মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। এ চুক্তির পর ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষ গঠিত হয়, যার প্রেসিডেন্ট ছিলেন পিএলওর তৎকালীন প্রধান ইয়াসির আরাফাত।

২০০৪ সালে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতা আন্দোলনের মহান নেতা মাহমুদ আব্বাসের রহস্যজনক মৃত্যু হয়।

এর পর ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেন মাহমুদ আব্বাস। তার বিরুদ্ধে ইসরাইলের প্রতি নমনীয় মনোভাবের অভিযোগ রয়েছে।

কিন্তু গত ৬ ডিসেম্বর ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণার পর থেকে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন আবুমাজেনখ্যাত মাহমুদ আব্বাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here