র‌্যাবের দরবারে বুধবার ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

0
90
hasina_7_1_3_7_1_287986ঢাকা: র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার রাজধানীর কুর্মিটোলায় সংস্থাটির সদর দফতরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সেখানে প্রধানমন্ত্রী র‌্যাবের বিশেষ দরবারে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেবেন। ২০০৪ সালের ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের প্যারেডে অংশ নেওয়ার মধ্য দিয়ে আত্মপ্রকাশ করে এলিট ফোর্স র‌্যাব।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান সমকালকে বলেন, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস দমনসহ দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা রক্ষায় র‌্যাব কাজ করে আসছে। তাদের কর্মদক্ষতা ও সাফল্য জনসাধারণের কাছে বিশেষভাবে প্রশংসিত হয়েছে। জঙ্গি দমনের পাশাপাশি পথভ্রষ্ট তরুণদের উগ্রপন্থা থেকে ফিরিয়ে আনতেও সংস্থাটি বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে।

র‌্যাব সদর দফতর সূত্র জানায়, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে বিশেষ দরবার। এর আগে প্রধানমন্ত্রীকে ‘গার্ড অব অনার’ দেওয়া হবে। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, তিন বাহিনীর প্রধান, স্বরাষ্ট্র সচিব ও পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি)। র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন।

র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, অভিযানিক কার্যক্রমের পাশাপাশি জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের পুনর্বাসনের মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতেও কাজ করছে র‌্যাব। এরই মধ্যে উগ্রপন্থায় উদ্বুদ্ধ হওয়া কয়েক তরুণ ও সুন্দরবনের ১০টি দস্যু বাহিনী তাদের ভুল বুঝতে পেরে র‌্যাবের কাছে আত্মমর্পণ করেছে। জঙ্গিবিরোধী কার্যক্রমে জনগণকে স্মপৃক্ত করার অংশ হিসেবে সম্প্রতি একটি বই প্রকাশ করা হয়েছে। ‘কতিপয় বিষয়ে জঙ্গিবাদীদের অপব্যাখ্যা এবং পবিত্র কোরআনের সংশিè®দ্ব আয়াত ও হাদীসের সঠিক ব্যাখ্যা’ নামের বইটি বিভিল্পু মহলে প্রশংসিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে জঙ্গি দমনে র‌্যাবের সাফল্য বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত হয়। পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে র‌্যাব সদস্যদের বিরুদ্ধে অপরাধে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগও ওঠে।

সংস্থাটির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানান, র‌্যাব সদস্যদের কর্তব্য পালনে বিচ্যুতি বা অনিয়ম একেবারেই সহ্য করা হয় না। কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার ক্ষেত্রে র‌্যাব বরাবরই এগিয়ে।

আত্মপ্রকাশের পর র‌্যাব একই বছরের ১৪ এপ্রিল আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে নামে। পহেলা বৈশাখে রমনার বটমূলে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে তারা। পরে ২১ জুন রাজধানীর উত্তরায় শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্চি হান্নানকে গ্রেফতার ছিল তাদের প্রথম পূর্ণাঙ্গ অভিযানিক কার্যক্রম।

র‌্যাবের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত তারা এক লাখ ৭৭ হাজার ১৮৫ জন অপরাধী ও জঙ্গি-সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে। একই সময়ে উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গোলাবারুদ, মাদকদ্রব্য, জাল টাকা, ভিওআইপি সরঞ্জাম, প্রত্মসম্পদ ইত্যাদি।