রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে বায়ার্নে রদ্রিগেজ

0
66

rodriguez_51897_1499834339স্পোর্টস ডেস্ক: তার সম্ভাব্য নতুন ঠিকানা হিসেবে পিএসজি, ম্যানইউ ও চেলসির নাম বেশি শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু সবাইকে চমকে দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে বায়ার্ন মিউনিখে পাড়ি জমালেন জেমস রদ্রিগেজ। আগামী দুই মৌসুম ধারে বায়ার্ন মিউনিখে খেলবেন রদ্রিগেজ। মঙ্গলবার দুই ক্লাবই নিজেদের ওয়েবসাইটে চুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ২০১৯ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত বায়ার্নে থাকবেন ২৫ বছর বয়সী এই কলম্বিয়ান তারকা। চুক্তি অনুযায়ী মেয়াদ শেষে রদ্রিগেজকে বায়ার্ন কিনতে পারবে।

২০১৪ সালের জুলাইয়ে মোনাকো থেকে রিয়ালে যোগ দেয়া রদ্রিগেজ বেশ দ্রুতই দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে ওঠেন। তবে গত বছর জানুয়ারিতে জিনেদিন জিদান কোচ হওয়ার পর থেকে প্রথম একাদশে অনিয়মিত হয়ে পড়েন তিনি। গত মৌসুমে লা লীগায় ২২ ম্যাচে খেলার সুযোগ পান কলম্বিয়ার এই মিডফিল্ডার। এ বছরের শুরু থেকেই তার দলবদলের সম্ভাবনা নিয়ে গুঞ্জন ছিল। সর্বশেষ গত মাসের শুরুতে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে জুভেন্টাসের বিপক্ষে ৪-১ গোলে জেতা ম্যাচে ১৮ জনের স্কোয়াডে অনুপস্থিতি সেই গুঞ্জন আরও বাড়িয়ে দেয়। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের হয়ে মোট ১১১ ম্যাচ খেলে ৩৬টি গোল করেছেন রদ্রিগেজ। এ সময়ে সতীর্থদের দিয়ে ৪১টি গোল করান ২০১৪ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা।

সাবেকদের ফিরিয়ে আনছে বার্সা গ্রীষ্মকালীন দলবদলের বাজারে এখন পর্যন্ত বড় মাপের কোনো খেলোয়াড় ভেড়াতে পারেনি বার্সেলোনা। সেই হতাশার বিপরীতে কোচ, কর্মকর্তা ও শুভেচ্ছাদূতের পদে ক্লাব কিংবদন্তিদের ন্যুক্যাম্পে ফিরিয়ে আনছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ফাইনালে জয়সূচক গোল করে বার্সাকে দ্বিতীয় চ্যাম্পিয়ন্স লীগ (২০০৫-০৬ মৌসুম) শিরোপা এনে দেয়া জুলিয়ানো বেলেত্তির প্রত্যাবর্তন বৈশ্বিক শুভেচ্ছাদূত হিসেবে। এ ভূমিকায় যোগ দিয়েছেন সাবেক সতীর্থ রোনালদিনহো ও এরিক আবিদালের সঙ্গে। ন্যুক্যাম্পে অনুষ্ঠিত বার্সা লিজেন্ডদের সর্বশেষ প্রীতি ম্যাচে (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তি দলের বিপক্ষে) খেলেছিলেন বেলেত্তি। যেখানে রিভালদো, গাইজকা মেন্দিয়েতা ও লুডোভিক জিউলির মতো বার্সার সাবেক তারকারা অংশ নেন। হোসে মারি বাকেরো ও গিলের্মো আমরকে কোচিং স্টাফে ফেরানোর ঘোষণাও দিয়েছে কাতালানরা। দু’জনই জোহান ক্রুইফের ড্রিম টিমে ছিলেন। বার্সা ‘বি’ ও যুব দলের হয়ে কাজ করবেন তারা।

অন্যদিকে বার্সার মূল দলে মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের কোচিং করানোর অপেক্ষায় আর্নেস্তো ভালভার্দে। এছাড়া ক্রীড়া পরিচালক হিসেবে সাবেক ক্লাবে ফিরেছেন রবার্তো ফার্নান্দেজ।

বার্সা-বায়ার্নকে টপকে গেল অ্যাটলেটিকো ইউরোপের দ্বিতীয় সেরা ক্লাব এখন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। উয়েফা র‌্যাংকিংয়ে বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখকে পেছনে ফেলে প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে দিয়েগো সিমিওনের দল। অ্যাটলেটিকোর সামনে কেবল নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। দু’দলের পয়েন্ট যথাক্রমে ১৫১.৭৯৯ ও ১৩৩.৭৯৯। ধারাবাহিক উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের আসর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে অন্যতম পরাশক্তি হয়ে উঠেছে অ্যাটলেটিকো। শুধু শিরোপা জেতা হয়নি। তিন মৌসুমের মধ্যে দু’বার (২০১৩-১৪ ও ২০১৫-১৬) ফাইনালে উঠেও স্বপ্নভঙ্গ হয় তাদের। দু’বারই প্রতিপক্ষ ছিল রিয়াল। পড়শিদের কাছে হেরেই এ বছর সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছে। ওয়েবসাইট।