রিও অলিম্পিকে নিষিদ্ধ হচ্ছে রাশিয়া?

0
281

promo293186370স্পোর্টস ডেস্ক: সচিতে শীতকালীন অলিম্পিকে নিজ দেশের ক্রীড়াবিদদের ডোপ পরীক্ষার বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেছিলো রাশিয়ার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। ডোপিং পরীক্ষার কারচুপিতে রাষ্ট্রীয়ভাবে মদদ দেওয়ার অভিযোগে রিও অলিম্পিকে নিষিদ্ধ করা হতে পারে রাশিয়াকে।

বিশ্ব মাদকবিরোধী সংস্থার (ওয়াডা) নতুন এক প্রতিবেদনে ডোপ টেস্টে দেশটির হস্তক্ষেপের বিষয়টি উঠে আসে। তদন্ত প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, রাশিয়ার ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সেই ডোপ পরীক্ষায় হস্তক্ষেপ করে এবং ফলাফল পরিবর্তন করে।

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) এক জরুরি সভা শেষে জানা যাবে রাশিয়ার অলিম্পিক ভাগ্য। তবে ধারণা করা হচ্ছে, ব্রাজিল অলিম্পিকে রাশিয়াকে নিষিদ্ধ করার মতো কঠোর সিদ্ধান্তই নিতে পারে আইওসি।

কানাডার অধ্যাপক রিচার্ড ম্যাকলারেনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাথলেটদের ডোপিং পরীক্ষার কারচুপিতে রাষ্ট্রীয়ভাবেই মদদ দিয়েছে রাশিয়া। এছাড়া ২০১০ ও ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত দুটি শীতকালীন অলিম্পিক, ২০১৩ সালে বিশ্ব অ্যাথলেটিকস চ্যাম্পিয়নশিপে ডোপিং পরীক্ষায় কারচুপি করেছিলেন রাশিয়ার অ্যাথলেটরা। আর এ কাজে রাশিয়ার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা সহায়তা করেছিলেন, এমনটাই দাবি করা হয়েছে ম্যাকলারেনের প্রতিবেদনে।

জানিয়ে রাখা ভালো, ভয়াবহ ডোপ কেলেঙ্কারির কারণে গত বছর রাশিয়াকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিকস থেকে। আর ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য রিও অলিম্পিকেও নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারে দেশটি।

কারণ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির কাছে এমন সুপারিশই করেছে ওয়াডা। এছাড়া আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সভাপতি টমাস বাখও ইঙ্গিত দিয়েছেন শক্ত পদক্ষেপ নেওয়ার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here