রাতে প্রযোজকের ফাঁদে পড়েছিলেন টিসকা!

0
223

TiscaChopraবিনোদন ডেস্ক: বলিউড ছবির বেশ পরিচিত মুখ টিসকা চোপড়া। ছোটপর্দাতেও জনপ্রিয় তিনি। ‘তারে জমিন পর’ ছবিতে অভিনয় করে আলোচনায় আসেন টিসকা। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। ভালো মন্দ দুই অভিজ্ঞতার সম্মূখীন হয়েছেন টিসকা। এ বার মুখ খুললেন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির কাস্টিং কাউচের সমস্যা নিয়ে।

এক সাক্ষাৎকারে টিসকা জানিয়েছেন, অভিনয়ের শুরুর দিকেই কাস্টিং কাউচের কবলে পড়েন তিনি। এক বিখ্যাত প্রযোজকের ফোন পান নায়িকা। সেই প্রযোজক তার ছবিতে কাস্ট করতে চেয়েছিলেন টিসকাকে। প্রযোজকের নাম না বলে তাকে ‘সরীসৃপ’ বলে সম্বোধন করেছেন এ অভিনেত্রী।

টিসকা বলেন, ওই প্রযোজক প্রথমে আমাকে বলেছিলেন কী ভাবে হিল পরে হাঁটতে হয় আমাকে শিখতে হবে, ম্যানিকিওর করাতে হবে। হেয়ার স্পাও করাতে হবে। আমি সে সব কথা খুব সিরিয়াসলি ফলো করতে শুরু করেছিলাম। তখন আমার অন্য এক বন্ধু বলে, ওই প্রযোজকের ছবি করা মানে শুটিং যতদিন চলবে, ততদিন তোমাকে ওর পোষ্য হয়ে থাকতে হবে। সেটাতে তুমি রাজি তো? তখন থেকে আমার সন্দেহের শুরু। এর পর শুটিংও শুরু হয়। মুম্বইয়ের আউটডোর শুটিংয়ে একই হোটেলের একই ফ্লোরে প্রযোজকের পাশের ঘরে থাকার ব্যবস্থা হয় টিসকার। প্রথম দু’দিন ভালোভাবে শুটিং হয়। তৃতীয় দিন রাতে প্রযোজক নিজের ঘরে রাত ৮টায় টিসকাকে ডিনারের আমন্ত্রণ জানান।

ডিনারের পাশাপাশি চিত্রনাট্য নিয়ে আলোচনার কথাও বলেন তিনি। কথামতো টিসকা ঠিক রাত ৮টায় সেই প্রযোজকের হোটেলের ঘরে উপস্থিত হন। নায়িকার অভিযোগ, তখন সেই ব্যক্তি শুধুমাত্র একটি মেরুন রঙের সার্টিনের লুঙ্গি পরে বসেছিলেন। আর সেটা এত বিসদৃশ যে টিসকা বিপদের গন্ধ পান। প্রযোজককে নামমাত্র আলিঙ্গন করে কোনও একটা ছুতোয় ঘর থেকে বেরিয়ে আসেন তিনি। তার পর আর ওই ছবিটি তিনি করেননি। এমনকী ওই প্রযোজক এর পর বহুবার ফোন করে টিসকার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি আর পাত্তা দেননি বলে জানিয়েছেন নায়িকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here