যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগের মুজিবনগর দিবসের সভায় অপ্রীতিকর ঘটনা

0
18

04182017_14_USAL_FIGHTINGনিউইয়র্ক : যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগের মুজিবনগর দিবসের অনুষ্ঠানে অপ্রীতিকর ঘটনা এখন টক অব দ্যা কমিউনিটিতে পরিণত হয়েছে। বিশেষ করে ঘটনাটি নিউইয়র্ক রাজ্য পেরিয়ে বাংলাদেশী অধ্যুষিত যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য অঙ্গরাজ্যের আওয়ামী দলীয় নেতা-কর্মীদের আলোচনার খোরাক হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে। গত ১৭ এপ্রিল সোমবার রাতে জ্যাকসন হাইটসে একটি রেষ্টুরেন্টে দলীয় কোন্দলের প্রেক্ষিতে সংগঠিত অপ্রীতিকর ঘটনার প্রেক্ষিতে দলীয় নেতা-কর্মীদের দৃষ্টি এখন কেন্দ্রের দিকে। এদিকে ঐ ঘটনার ভিডিও চিত্র দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দিপু মনির কাছে পাঠানো হয়েছে। ‘আন অফিসিয়াল’ রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রে। অপরদিকে অপ্রীতিকর ঘটনার প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির এক সভায় বিস্তারিত পর্যালোচনা ও পরবর্তী করণীয় এবং ২৩ এপ্রিল রোববার নিউইয়র্কে আয়োজিত দলীয় প্রতিবাদ সভা শেষ পর্যন্ত বাতিল করা হয়েছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে ওয়াশিংটন অবস্থানের সময় ডা. দিপু মনির কাছে ১৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত মুজিবনগর দিবসে সংগঠিত অপ্রীতিকর ঘটনার ভিডিও পাঠানো এবং ঘটনাটি উভয় পক্ষ থেকে অবিহিত করা হয়েছে। এনিয়ে ডা. দিপু মনি যুত্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী সহ সংগঠনের একাধিক নেতার সাথে ফোনে কথা বলেছেন। ঘটনার ব্যাপপরে ডা. দিপু মনি ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন বলে সূত্র জানায়। ডা. দিপু মনি বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রে কথা বলবেন বলে সূত্রগুলো জানিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ২৩ এপ্রিল রোববার সকালে ডা. দিপু মনি ঢাকার উদ্দেশ্যে যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করেন। খবর ইউএনএ’র।

এদিকে গত ১৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত মুজিবনগর দিবসে সংগঠিত অপ্রীতিকর ঘটনার প্রেক্ষিতে গত ১৯ এপ্রিল বুধবার নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড সিটির একটি হোটেলে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভা হয়েছে। জরুরী এই সভায় দলের অধিকাংশ সদস্য যোগ দেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র দাবী করেছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান এবং সভা পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ। তবে এই সভার ব্যাপারে কার্যকরী পরিষদের অনেকেই (সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদ সমর্থক) অবহিত নন বলে বলে নাম প্রকাশে এক নেতা ইউএনএ প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন।

সভার ব্যাপারে ড. সিদ্দিকুর রহমান গত ২৩ এপ্রিল রোববার এই প্রতিনিধিকে বলেন, দলের স্বার্থেই সভাটি করতে হয়েছে। এবং সভায় ১৭ এপ্রিলের ঘটনার পর্যালোচনা ছাড়াও পরবর্তী করণীয় বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। তিনি বলেন, ঐ ঘটনার ব্যাপারে কেন্দ্রকে জানানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ একটি বড় দল। এখানে কারো প্রতি আমার ব্যক্তিগত কোন ক্ষোভ বা আক্রোশ নেই। সংগঠনের নিয়ম-নীতি মেনেই দল পরিচালিত হচ্ছে।

অপরদিকে দলের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী একই দিন ইউএনএ প্রতিনিধির সাথে ফোনে আলাপকালে বলেন, সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান নিজের মন-মর্জি মতো দল পরিচালনা করছেন। দলের স্বার্থে আমরা তার কর্মকান্ড পর্যবেক্ষণ করছি এবং প্রয়োজনে সাংগঠনিক পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবো। তিনি বলেন, যারা যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করেন না বা ব্যবসার নামে ১২ মাসের মধ্যে ১০ মাসই দেশে থাকের তাদের দলের নেতৃত্ব ধরে রাখার কোন অধিকার নেই। ব্যবসায়িক স্বার্থে ড. সিদ্দিক-নিজাম ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি আরো বলেন, আমরা কেউ ১৭ এপ্রিলের সভায় হামলা করিনি এবং বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত হামলার খবরও সঠিক নয়।

এদিকে মুজিবনগর দিবসের সভায় অপ্রীতিকর ঘটনার প্রতিবাদে ২৩ এপ্রিল রোববার নিউইয়র্কে আহুত দলীয় প্রতিবাদ সমাবেশ পবিত্র শবে মেরাজের জন্য পর্যন্ত বাতিল করা হয় বলে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY