ম্যানাফোর্টের বিরুদ্ধে সাক্ষীদের কানপড়া দেয়ার অভিযোগ

0
29

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা শিবিরের সাবেক ব্যবস্থাপক পল ম্যানাফোর্টের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সাক্ষীদের প্রভাবিত করার অভিযোগ এনেছেন মার্কিন তদন্ত কর্মকর্তারা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগ নিয়ে তদন্তরত বিশেষ পরামর্শক রবার্ট মুলার বলেন, জামিনের শর্ত ভঙ্গ করে ম্যানাফোর্ট তার বিরুদ্ধে হওয়া মুদ্রা পাচার ও কর ফাঁকির মামলায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। ৬৯ বছর বয়সী ম্যানাফোর্ট তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। খবর বিবিসির।

ট্রাম্পের সাবেক এ সহযোগীর বিরুদ্ধে আনা এ অভিযোগের সঙ্গে ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মস্কো ও রিপাবলিকান শিবিরের যোগসাজশের সংশ্লিষ্টতা নেই। ট্রাম্পও শুরু থেকেই তার নির্বাচনী শিবিরের সঙ্গে রুশ সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করে আসছেন। এ সংক্রান্ত তদন্তকে ধারাবাহিকভাবে ‘উইচ হান্ট’ অ্যাখ্যা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

মুদ্রা পাচার ও অবৈধ লবিংয়ের অভিযোগে চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ম্যানাফোর্টের বিচার শুরু হওয়ার কথা। কর ফাঁকির অন্য মামলাটির বিচার শুরু হবে আগামী বছর। ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে ইউক্রেনের সাবেক রাশিয়াপন্থী সরকারের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলের কাজে লবিস্ট হিসেবে কোটি কোটি ডলার নেয়ার অভিযোগ আছে ম্যানাফোর্টের বিরুদ্ধে। লবিং করলেও এ বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে নিবন্ধন করেননি তিনি।

মুলার বলছেন, ওই অবৈধ লবিংয়ের বিষয়ে সাক্ষ্য দিতে পারেন এমন ব্যক্তিদের সঙ্গেই ম্যানাফোর্ট যোগাযোগ করে তাদের কানপড়া দিয়েছেন। আদালতকে লেখা এক পৃথক ঘোষণায় মার্কিন তদন্ত সংস্থা এফবিআইয়ের স্পেশাল এজেন্ট ব্রুক ডুমিন বলেন, সাক্ষীদের সঙ্গে এ ধরনের যোগাযোগ তাদের সাক্ষ্যে প্রভাব এবং কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রমাণ লোপাটের কারণও হতে পারে।

২০১৬ সালের আগস্টেই ট্রাম্পশিবিরের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন ম্যানাফোর্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here