মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বসবেন না কপটিক পোপ

0
66
আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণার পর মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সকে মধ্যপ্রাচ্যে স্বাগত জানানো হবে না এবং তার সঙ্গে বৈঠক হবে না বলে জানিয়েছিল ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ।
এবার অনুরূপ ঘোষণা এলো মিসরীয় কপটিক চার্চের পোপ দ্বিতীয় তাওয়াদ্রুসের পক্ষ থেকে। মধ্যপ্রাচ্য সফরের সময় আগামী ২০ ডিসেম্বর তার সঙ্গে মাইক পেন্সের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল।
শনিবার এক বিবৃতিতে কপটিক চার্চের পোপ বলেন, ট্রাম্প নিজের সিদ্ধান্তের আগে আরব জনগণের অনুভূতিকে আমলে নেননি। এর আগে মিসরের বিখ্যাত আল আজহার মসজিদের প্রধান ইমাম শেখ আহমদ আল তাইয়েবও মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের সঙ্গে নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করেন।
কপটিক পোপ হলেন মিসরীয় খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মগুরু। যিশুখ্রিস্টের মৃত্যুর ৪২ থেকে ৬২ বছরের মধ্যে কোনো একসময়ে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে মতবিরোধের জেরে খ্রিস্টধর্মের মূল ধারা থেকে মিসরীয় খ্রিস্টানদের একটি অংশ বের হয়ে যান, তাদেরই কপটিক খ্রিস্টান বলা হয়। এটি খ্রিস্টধর্মের প্রথম বড় কোনো বিভাজন। মিসরে কপটিক খ্রিস্টানদের সংখ্যা ৮৩ লাখের মতো। এ ছাড়া বিশ্বব্যাপী এই সংখ্যা দেড় কোটিরও বেশি।
এর আগে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল মালিকি জানিয়েছিলেন, ২০ ডিসেম্বর মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সঙ্গে বৈঠকে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসসহ ফিলিস্তিনের নেতারা অংশ নেবেন না।
বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে স্বীকৃতি দিয়ে বলেন, শিগগিরই তেলআবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের কাজ শুরু হবে। ট্রাম্পের বিতর্কিত এ ঘোষণায় বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদও যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছে।
জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী স্বীকৃতির ঘোষণা বাতিল করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আরব লীগ। ইসরাইলের তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস না সরানোর কথাও বলেছেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here