মার্কিন ডলার ব্যবহার বন্ধ করছে ইরান

0
103

iran-money20170202192016আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সাত মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ নিষিদ্ধ করায় তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে ইরান। দেশটিতে মার্কিন নাগরিকদের ভিসা বাতিলের পর সরকারি বিবৃতি ও অর্থনৈতিক প্রতিবেদনে এখন থেকে আর ডলারের ব্যবহার হবে না বলে জানিয়েছে তেহরান। স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ দৈনিক দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ভালিউল্লাহ সেইফ এ ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, তার দেশ এখন থেকে সব ধরনের আর্থিক এবং বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময় প্রতিবেদনে স্থিতিশীল আরেকটি সাধারণ বৈদেশিক মুদ্রার ব্যবহার করবে। আগামী মার্চ থেকে দেশটির নতুন অর্থবছরের শুরু থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। ২৮ জানুয়ারি ইরানসহ অন্য ছয় মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ নিষিদ্ধের জেরে তেহরান এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিশ্বজুড়ে ট্রাম্পের ওই সিদ্ধান্তের সমালোচনা ও নিষিদ্ধ দেশগুলোর প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থার হুঁশিয়ারির মাঝে মার্কিন ডলারের ব্যবহার এড়িয়ে চলার কথা জানালো ইরান।

এর আগে নিষেধাজ্ঞা আরোপের জেরে মার্কিন নাগরিকদের ইরান ভ্রমণের ভিসা বাতিল করে তেহরান। সম্প্রতি দুই দেশের সম্পর্কের অবনতির মাঝে তেহরান চলতি সপ্তাহে মাঝারি মাত্রার একটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। বুধবার ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হোসেইন দেহঘান জোর দিয়ে বলেছেন, পরীক্ষা চালানো ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু ওয়ারহেড বহনে সক্ষম ছিল না। একইসঙ্গে ২০১৫ সালের পারমাণবিক চুক্তিরও লঙ্ঘন হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে, দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক বাণিজ্য অংশীদার চীন, রাশিয়া, তুরস্ক, আজারবাইজান বা ইরাকের সঙ্গে লেনদেনের ক্ষেত্রে ইউরো অথবা অন্য কোনো মুদ্রা বেছে নেবে কিনা সেবিষয়ে পরিষ্কার তথ্য পাওয়া যায়নি। ইরানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রফতানি খাত তেলের মূল্য নির্ধারণ করা হয় ডলারে। প্রস্তাবিত পরিবর্তন এ বিষয়টিকে জটিল করে তুলতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here