মাদ্রিদে ‘গণতন্ত্র, বৈশ্বিক, আঞ্চলিক এবং বাংলাদেশ’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক

0
233

125945aস্পেন: স্পেনের মাদ্রিদে ‘গণতন্ত্র, বৈশ্বিক, আঞ্চলিক এবং বাংলাদেশ প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৭ নভেম্বর মাদ্রিদের একটি রেস্টুরেন্টে স্পেন প্রবাসী  সাংবাদিক ফোরামের আয়োজিত এ গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান আলোচক ছিলেন ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়য়ের সহকারী অধ্যাপক, বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী, গবেষক শান্তনু মজুমদার।

সমাজকর্মী ও সাংবাদিক মিনহাজুল আলম মামুনের সঞ্চালনায় স্পেন কমিউনিটির বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিরা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। বর্তমান গণতন্ত্রের সংজ্ঞা দিতে গিয়ে শান্তনু মজুমদার বলেন, “শুধু  নির্বাচন দিয়ে রাষ্ট্র, রাজনীতিবিদদের ওপর দায়ভার চাপানো যায় না। এক্ষেত্রে সকল স্তরেরে মাঝে গণসচেতনতা, দেশপ্রেম জাগিয়ে তুলতে হবে। বৈশ্বিক উন্নয়ন কর্মসূচিকে জাতীয় পরিকল্পনার সঙ্গে সমন্বয় করা, সবার অংশগ্রহণ ও জবাবদিহিতা, সম্পদের প্রাপ্যতা, বস্তুনিষ্ঠ পরিসংখ্যান ও তদারকি এবং কাঠামোগত কৌশল ও বাস্তবায়ন দরকার।” এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সুশাসন প্রতিষ্ঠা, অর্থায়নের ব্যবস্থা, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও গণতন্ত্র পূনঃপ্রতিষ্ঠা করা সর্বাগ্রে জরুরি বলে মনে করেন তিনি।

বাংলাদেশ নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে একমাত্র বিদেশ থেকে আসা রেমিটেন্সের কারণে। বিশ্বে শ্রমিকের চাহিদা উত্তরোত্তর বাড়ছে। বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্বের ষষ্ঠ শীর্ষ জনশক্তি রপ্তানিকারক দেশ। এ অবস্থান আরো উন্নত করার উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এ জনশক্তি রপ্তানি প্রবৃদ্ধি দীর্ঘমেয়াদে ধরে রাখার ক্ষেত্রে একটি বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে। দেশের কর্মক্ষম নারী-পুরুষকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারলে রেমিটেন্সই বাংলাদেশের ভাগ্য পাল্টে দিতে পারে। সবাইকে সেই লক্ষ্যে কাজ করতে হবে।

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে শান্তনু মজুমদার বলেন, “মানবতার নিরিখে প্রথমেই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় জরুরি। ১৯৭১ সালে আমাদের শরণার্থী হওয়ার কথা স্মরণ রাখতে হবে। দীর্ঘ তিন  ঘণ্টাব্যাপী আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা হলেন কাজী এনায়েতুল করিম তারেক, আল মামুন, খুরশেদ আলম মজুমদার, আব্দুল কাইউম পঙ্কি, মনোওয়ার হোসেন মনু, মিজানুর রহমান বিপ্লব, এ কে এম জহিরুল ইসলাম, আব্দুল কাইউম মাসুক, সোহেল আহমেদ সামসু, নাজমুল ইসলাম নাজু, সাংবাদিক সেলিম আলম, সাহাদুল সুহেদ, জাহিদুল ইসলাম মাসুদ, ইব্রাহিম খলিল, তারেক হুসেন, আবু জাফর রাসেল, হুমাউন কবির রিগ্যান, দিদার আহমেদ, আব্দুল মুতালেব বাবুল প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here