মসুলে বেসামরিক হত্যাকাণ্ডের পক্ষে মার্কিন জেনারেলের সাফাই

0
91

d792bb7b85aa58edcaab7986893f3fe0-58dc804231c34আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মসুলে বেসামরিক হত্যাকাণ্ডের পক্ষে সাফাই গাইলেন সিনিয়র মার্কিন জেনারেল জোসেফ ভোটেল। ইরাকের মসুলে অভিযান চলাকালীন বেসামরিক নাগরিক যেন নিহত না হন সে বিষয়ে নিজেরা খুবই সতর্ক বলে দাবি করেন তিনি। তিনি বলেন, সম্প্রতি মসুলে মার্কিন বিমান হামলায় বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

১৭ মার্চের ওই ঘটনায় মার্কিন জোটের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে এই ঘটনায় আইএসেরও ভূমিকা রয়েছে বলে দাবি তাদের। স্থানীয় কর্মকর্তা ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সেদিন আল-জায়েদা জেলায় অন্তত ২৪০ জন বেসামরিক প্রাণ হারিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো।

জেনারেল জোসেফ ভোটেল বলেন, তারা একটি স্ট্যান্ডার্ড মেনে চলার চেষ্টা করেন, কিন্তু মসুলের মতো জনবহুল স্থানে এটা মেনে চলা খুবই কঠিন। তিনি বলেন, ‘আমি মানছি যে এমন শহরে সবকিছু মেনে চলা খুবই কঠিন। কিন্তু আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’ মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান ভোটের আর্মড কমিটির বৈঠকে একথা বলেন। কর্মকর্তারা জানান, যুদ্ধ এখন খুবই মারণাত্মক অবস্থায় হওয়ায় বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার বিষয়টি অনুমিতই ছিল।

তবে যতই সতর্কতার দাবি করুক না কেন, এই ঘটনার জন্য মানবাধিকার সংগঠনগুলোর তোপের মুখেই পড়তে হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রকে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, এত বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার ব্যাপারে এটা স্পষ্ট যে যুক্তরাষ্ট্র তাদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে।

ভোটেলের দাবি, বেসামরিক নাগরিকদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র সতর্কতা ও দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে আইএস তাদের ব্যবহার করছে। এই বুধবারও মসুলের আল নুরি মসজিদের কাছেই আইএস ও ইরাকি পুলিশের গুলি বিনিময় হয়েছে। তবে ১৭ মার্চ কি হয়েছিল সে বিষয়ে এখনও স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি।

সূত্র : রয়টার্স

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here