মন্ত্রিসভায় গরিবদের ঠাঁই হবে না: ট্রাম্প

0
76

trump_50280_1498156948আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তার প্রশাসনে অর্থনীতির বিষয়ে ভূমিকা রাখে এমন কোনো পদে তিনি গরিব ব্যক্তিদের ঠাঁই দিতে চান না। ট্রাম্প এ মন্তব্যের মাধ্যমে তার মন্ত্রিসভায় যে ধনী ব্যক্তিরা স্থান পাবে- সরাসরি সে কথাই জানিয়ে দিলেন। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

বুধবার রাতে আইওয়া রাজ্যে এক র‌্যালিতে ট্রাম্প বলেন, অনেকেই বলছেন, কেন আমি অর্থনৈতিক ইনচার্জ হিসেবে একজন ধনী ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে যাচ্ছি? এটা সত্যি। অর্থনৈতিক সচিব উইলবার রস একজন সম্পদশালী ব্যক্তি। কারণ, আমি যেমনটা চাই সে তেমনই।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ব্যাখ্যা করে বলেন, রস ও আমার অর্থনৈতিক উপদেষ্টা গ্যারি কোহেনকে এ পদে চাকরির জন্য অনেক কিছুই ত্যাগ করতে হবে। বিশেষ করে কোহেন গোল্ডম্যান স্যাক্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট ছিলেন এবং সেখান থেকে বড় ধরনের আর্থিক সুবিধা পেতেন।

ট্রাম্প বলেন, আমি ধনী, গরিব সব মানুষকে ভালোবাসি। কিন্তু বিশেষ কিছু পদে গরিবদের রাখতে চাই না। বুঝতে পেরেছেন? আইওয়ার সিডার র‌্যাপিড শহরে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে জর্জিয়ার বিশেষ নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী কারেন হ্যান্ডেলের জয় উদযাপন করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্প বলেন, ‘বিশেষ এ নির্বাচনে আমরা ৫-০ অবস্থানে রয়েছি। এটা সত্য যে জনগণ আমাদের ভালোবাসে।’

এদিকে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মেক্সিকো সীমান্তে অবৈধ অভিবাসীর স্রোত ঠেকাতে এবার সৌর প্যানেল বসানোর ব্যক্তিগত পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন।

আইওয়ার সমাবেশে তিনি বলেন, ‘এটা অনন্য। এটা আমার নিজের পরিকল্পনা। এটা একটি ভালো চিন্তা নয়কি? ট্রাম্পের মতে, সীমান্তে সোলার প্যানেল বসালে সস্তায় জ্বালানি সরবরাহ করা সম্ভব হবে। নির্মাণ ব্যয়ও কমে আসবে। দেখতেও সুন্দর হবে। মার্কিন ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটির (ডিএইচএস) পক্ষ থেকে দুই শতাধিক কোম্পানিকে প্রস্তাবিত দেয়ালের ডিজাইন জমা দেয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

এর মধ্যে লাস ভেগাসভিত্তিক গ্লেসন পার্টনার্স স্টিল, সিমেন্ট ও সোলার প্যানেলের মিশেলে দেয়াল নির্মাণের প্রস্তাব দিয়েছে।

অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকাতে মেক্সিকো সীমান্তে বিলিয়ন ডলারের নিরাপত্তা দেয়াল নির্মাণের পরিকল্পনা নেন ট্রাম্প। এমনকি দেয়াল নির্মাণের বিপুল অর্থ মেক্সিকোর কাছ থেকে আদায় করারও ঘোষণা দেন। ট্রাম্পের এ পরিকল্পনার তীব্র বিরোধিতা করে মেক্সিকো সরকার। দেশটির প্রেসিডেন্ট এনরিকো পেনা নিয়েতো দেয়াল নির্মাণ বাবদ ট্রাম্পকে কোনো অর্থ দেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন।

এছাড়া ট্রাম্পের বিরুদ্ধে পথে নেমে বিক্ষোভে করেছেন দেশটির লাখো মানুষ।

চীনের সঙ্গে সম্পর্ক দারুণ-ট্রাম্প : চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের দারুণ সম্পর্ক রয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বুধবার আইওয়া রাজ্যের সাবেক গভর্নর টেরি ব্র্যানস্টাডকে বেইজিংয়ে নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করার সময় এ কথা বলেন তিনি।

ট্রাম্প বলেন, আমাদের চীনের সঙ্গে খুবই ভালো সম্পর্ক রয়েছে এবং আমি চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে অনেক পছন্দ করি। এর একদিন আগেই ট্রাম্প অভিযোগ করেছিলেন যে উত্তর কোরিয়াকে দমনে চীন ব্যর্থ হয়েছে।

এশিয়ার দেশগুলোতে মার্কিন আধিপত্য জোরদারে প্রকাশ্য বিরোধী অবস্থানে রয়েছে চীন। উত্তর কোরিয়ার পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির ওপর কর্তৃত্ব আরোপ করতে বরাবরই বেইজিংকে আমন্ত্রণ জানিয়ে আসছিল ওয়াশিংটন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here