ভারতে হজে ভর্তুকি বাতিলের উদ্যোগ

0
52

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ভারতে হজে ভর্তুকি তুলে দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে ৪৫ বছরের বেশি বয়সী মহিলাদের পুরুষসঙ্গী ছাড়াই হজে যাওয়ার অনুমতি দেয়ারও প্রস্তাব করা হয়ছে।

সেক্ষেত্রে ওই মহিলাদের কমপক্ষে চারজনের দল গড়ে হজযাত্রা করতে হবে। ভারতের সাবেক সচিব আফজাল আমানুল্লাহর নেতৃত্বাধীন একটি কমিটি এ খসড়া তৈরি করেছে। সম্প্রতি তা জমা দেয়া হয়েছে সংখ্যালঘু মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভির দফতরে। খবর এনডিটিভির।

২০২২ সালের মধ্যে দফায় দফায় হজে ভর্তুকি তুলে দিতে নির্দেশ দিয়েছিল ভারতের সুপ্রিমকোর্ট। সেই নির্দেশ মেনেই ভর্তুকি তুলে দেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

নরেন্দ্র মোদি সরকার ২০১৮ সালের হজযাত্রা নয়া নীতি অনুযায়ী করতে চায় বলে জানিয়েছেন নকভি। সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রণালয় সূত্রের খবর, হজযাত্রায় খরচ কমলে যে টাকা সরকারের হাতে থাকবে তা মুসলিম সম্প্রদায়েরই উন্নতির জন্য খরচ করা হবে।

সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা আরও জানিয়েছেন, এতদিন নারীরা হজে যেতে গেলে একজন পুরুষসঙ্গীর (মেহরম) প্রয়োজন হতো।

বাবা, ভাই বা ছেলের মতো আত্মীয়, যাদের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্কের সম্ভাবনা নেই তারাই মেহরম হতে পারেন। কিন্তু নয়া নীতিতে ৪৫ বছরের বেশি বয়সী নারীদের মেহরম ছাড়াই হজযাত্রার অনুমতি দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে কমিটি। সে ক্ষেত্রে ওই নারীদের অন্তত চারজনের দল গড়ে যেতে হবে। ৪৫ বছরের কম বয়সী নারীদের অবশ্য এখনও মেহরমের সঙ্গে যেতে দেয়ার কথাই বলা হয়েছে।

হজযাত্রীদের বিমানের বদলে জাহাজে পাঠানোর প্রস্তাবও রয়েছে খসড়া নীতিতে। তাতে খরচ কমবে। মন্ত্রণালয় সূত্রে খবর, দিল্লি, লখনউ, কলকাতা, অহমেদাবাদ, মুম্বাই, চেন্নাই, হায়দ্রাবাদ, ব্যাঙ্গালুরু ও কোচি থেকে জাহাজে হজযাত্রীদের পাঠানোর কথা ভাবা হচ্ছে।

এ বিষয়ে সৌদি আরব সরকারের সঙ্গে কথা বলবে দিল্লি। তার পরে এ যাত্রার বিষয়ে জাহাজ সংস্থাগুলো কতটা আগ্রহী জানতে দরপত্র প্রকাশ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here