ব্রিটেনে হঠাৎ মধ্যবর্তী নির্বাচনের ঘোষণা

0
109

uk_election_theresa_may_45052_1492520109আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ব্রিটেনে হঠাৎ মধ্যবর্তী নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে।

মঙ্গলবার সরকারি বাসভবন ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে তিনি এ ঘোষণা দেন। খবর বিবিসি’র।

তেরেসা মে বলেন, ৮ জুন নির্বাচনের জন্য বুধবার তিনি সংসদে প্রস্তাব আনবেন।

ব্রিটেনের পরবর্তী নির্বাচন ২০২০ সালে হওয়ার কথা। এখন মধ্যবর্তী নির্বাচনের এ প্রস্তাব পাশের জন্য সংসদের দুই-তৃতীয়াংশ এমপির সমর্থন লাগবে।

গত জুন মাসে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বেরিয়ে আসার (ব্রেক্সিট) প্রশ্নে ব্রিটেনে গণভোটের পর তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যমেরন পদত্যাগ করার পর তেরেসা মে প্রধানমন্ত্রী হন।

গত কয়েক মাসে প্রধানমন্ত্রী মে একাধিকবার মধ্যবর্তী নির্বাচনের সম্ভাবনা নাকচ করে দেন। ফলে হঠাৎ তার এই ঘোষণা অনেকেই অবাক হন।

জাতীয় স্বার্থেই এই নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ব্রেক্সিটের পর ব্রিটেনের স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে ‘অনিচ্ছা সত্ত্বেও তিনি নির্বাচন ডাকছেন।

তিনি বলেন, ব্রেক্সিটের পর জাতি এককাট্টা হলেও সংসদ দ্বিধাবিভক্ত। বিরোধী লেবার পার্টি ইইউর সঙ্গে চূড়ান্ত বোঝাপড়ার চুক্তির বিরোধিতার হুমকি দিয়েছে। লিবারেল ডেমোক্রাটরা সরকারকে অচল করে দেয়ার হুমকি দিচ্ছে…।

তেরেসা মে বলেন, এই অবস্থায় নতুন নির্বাচন না দিলে তাদের ‘রাজনৈতিক খেলা’ অব্যাহত থাকবে।

তবে অনেক রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মনে করছেন, জেরেমি করবিনের নেতৃত্বে বিরোধী লেবার পার্টির বর্তমান বেহাল অবস্থার সুযোগ নিতে চাইছেন তেরেসা মে।

সাম্প্রতিক জনমত জরিপগুলোতে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির চেয়ে অনেক পিছিয়ে লেবার। ভোটারদের কাছে কনজারভেটিভ পার্টির গ্রহণযোগ্যতা যেখানে ৪২ শতাংশ, লেবারের গ্রহণযোগ্যতা সেখানে মাত্র ২৭ শতাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here