ব্যারিস্টার শাকিলার জামিন আপিলে বহাল, মুক্তিতে বাধা নেই

0
228

59134জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগে দুই মামলায় ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানাকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। জামিনের মেয়াদ এ মামলার চার্জ গঠনের আগ পর্যন্ত থাকবে। এ আদেশের ফলে শাকিলার মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবীরা।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি শাকিলাকে পাসপোর্ট জমা রাখার শর্তে জামিন দেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত চেয়ে করা রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের শুনানী করে আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

রোববার প্রধান বিচারপতির এসকে সিনহার নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে শাকিলার পক্ষে খন্দকার মাহবুব হোসেন ও জয়নুল আবেদীন শুনানি করেন।সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট সগীল হোসেন লিওন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

পরে আদালত থেকে বেরিয়ে সগীর হোসেন লিওন বলেন, শাকিলার বিরুদ্ধে দায়ের করা দুই মামলায় অভিযোগ গঠন করার আগ পর্যন্ত জামিন দিয়েছেন আপিল বিভাগ। দুই মামলায় জামিন হওয়ায় শাকিলার মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই।

হামজা ব্রিগেড নামের একটি জঙ্গি সংগঠনকে অস্ত্র কেনার জন্য এক কোটি ৮ লাখ টাকা যোগানোর অভিযোগে ২০১৫ সালের ১৮ আগস্ট রাতে ঢাকার ধানমণ্ডি থেকে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শাকিলা ফারজানাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। যিনি চট্টগ্রামের বিএনপি নেতা সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের মেয়ে। ওইদিন তার সঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের আরেক আইনজীবী হাসানুজ্জামান লিটন ও ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী মাহফুজ চৌধুরী বাপনকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে বাঁশখালী ও হাটহাজারীতে দায়ের করা সন্ত্রাসবিরোধী আইনের মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়। ওই মামলায় আইনজীবী লিটন ও বাপন গত বছরের ডিসেম্বরে জামিনে মুক্তি পান।

কিন্তু দুই মামলায় গত বছরের ২৮ নভেম্বর শাকিলা বিচারিক আদালতে জামিন নামঞ্জুর হয়। পরে চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি হাইকোর্টে জামিন আবেদন করা হয়।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি ব্যারিস্টার শাকিলাকে অন্তরবর্তীকালীন জামিন দেন হাইকোর্ট। ২৯ ফেব্রুয়ারি ও ১৩ এপ্রিল হাইকোর্টের দেওয়া জামিন দুই দফায় স্থগিত রাখেন আপিল বিভাগ। শেষ পর্যন্ত রবিবার রাষ্ট্রপক্ষের লিভ টু আপিল খারিজ করে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রাখল আপিল বিভাগ।

LEAVE A REPLY