বোনের খুনিকে ক্ষমা করেননি সেরেনা উইলিয়ামস

0
135

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্যারিয়ারের সবচেয়ে শোচনীয় হার। কোনোমতে একটি গেমে জিতেছিলেন। তারপর অসহায় আত্মসমর্পণ। গত ৩১ জুলাই ব্রিটেনের জোহানা কন্তার কাছে ৬-১, ৬-০ গেমের অভাবনীয় হারের কারণটা অবশেষে জানালেন মার্কিন টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস।

সেদিন কোর্টে নামার আগে একটি খবর এলোমেলো করে দিয়েছিল সব। কোন খবর? বড় বোন ইউটুন্ডে প্রাইসের খুনি ছাড়া পেয়ে গেছে! টাইম ম্যাগাজিনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সেরেনা জানিয়েছেন, ‘কোর্টে নামার ১০ মিনিট আগে ইনস্টাগ্রামে খবরটা জানতে পারি। রবার্ট এডওয়ার্ড মিক্সফিল্ড, সেই খুনি জেল থেকে ছাড়া পেয়ে গেছে। ওই মানুষটার ১৫ বছর জেল হয়েছিল। ১২ বছরের মাথায় ছাড়া পেয়ে গেল! খবরটা শোনার পর কিছুতেই মাথা থেকে তা ঝেড়ে ফেলতে পারিনি। আমার বোন আর কখনও ফিরে আসবে না। তবে আমার বোনের কী দোষ ছিল বলুন তো? সে তো আমাকে কখনও জড়িয়েই ধরতে পারল না?’ এতগুলো বছর পেরিয়ে গেছে, এতদিন শাস্তি পাওয়ার পরও কি রবার্টকে ক্ষমা করা যায় না? সেরেনার জবাব, ‘না, আমি এখনও মানসিকভাবে সেই জায়গায় পৌঁছতে পারিনি। মাঝে মাঝে মনে হয়, দিই ক্ষমা করে। তবে এখনও পারিনি। হয়তো পারব কোনো একদিন।’

সেরেনার বোন প্রাইস যখন মারা যান ২০০৩ সালে, তখন তার তিন সন্তানের বয়স যথাক্রমে ১১, নয় ও পাঁচ বছর। সেরেনা বলেছেন, ‘বাচ্চাগুলোর কথা যখন ভাবি, খুব কষ্ট হয়। ওদের খুব ভালোবাসি। তাই বোধহয় ওদের মায়ের খুনিকে ক্ষমা করতে এতটা কষ্ট অনুভব করি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here