বৃটেনের কার্ডিফ শাহ্‌জালাল বাংলা স্কুল পূণরায় খোলার জন্য নতুন কমিটি গঠন

0
13

05022017_04_Kardiff_Bangla_Schoolযুক্তরাজ্য: মাল্টিমিডিয়া, মাল্টিকালচারেল ও মাল্টিন্যাশনালের বৃটেনের ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফ শহরে ১৯৮১ সালের জুলাই মাসে কাডিফে প্রথম যে সংগঠনটির জন্ম হয়েছিলো সেই সংগঠনটির প্রথম নাম ছিলো দি প্যারেইড রোথ বাংলা সাপ্লিমেন্টারী স্কুল। কাডিফের অফ সিটি রোডের ২৮ দ্যা প্যারেইডে বাংলা স্কুলের ক্লাস নেওয়া হতো। ১৯৮৮ সালে কাডিফের কুইস রোডে শাহ্‌জালাল মসজিদ প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর এই স্কুলটি মসজিদের নীচ তলায় স্থানান্তর করা হলে নাম পরিবতন করে রাখা হয় কার্ডিফ শাহ্‌জালাল বাংলা স্কুল।

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত এই স্কুলের প্রতিষ্ঠাতাকালীন চেয়ারম্যান হিসাবে কমিউনিটির প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, সেক্রেটারি হিসাবে কমিউনিটি লিডার মরহুম আলহাজ্ব মোহাম্মদ সুরুক মিয়া ও ট্রেজারার হিসাবে কমিউনিটির প্রবীন মুরব্বী আব্দুল আহাদ চৌধুরী এবং সদস্য হিসাবে কমিউনিটির প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ,কমিউনিটির প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব মোহাম্মদ রেনু মিয়া, মরহুম আলহাজ্ব উম্মর আলী, মরহুম মকলিছ মিয়া, মরহুম আলহাজ্ব আব্দুল গনি, আলহাজ্ব আবু বক্কর কটু মিয়া, আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান, আলহাজ্ব কুতুব চৌধুরী, সিরাজ আলী, হারুনুর রহমান ও মরহুম আমতর আলী সহ কমিউনিটির তথকালীন নেতৃবৃন্দের অক্লান্ত পরিশ্রমে স্কুলটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। অতীতের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে পরবতীতে বিভিন্ন সময়ে কমিউনিটির সহযোগীতায় বিভিন্নজন কমিটির চেয়ারম্যান, সেক্রেটারি ও ট্রেজারারসহ পরিচালনা কমিটির সদস্যের দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে স্কুলটিকে ধাপেধাপে এগিয়ে নিয়ে যান।

দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা ঐতিহ্যবাহী কার্ডিফ শাহ্‌জালাল বাংলা স্কুলটিকে পূণরায় খোলার লক্ষ্যে গত রোববার দুপুর ১২ ঘটিকায় মসজিদ মিলনায়তনে কমিউনিটির এক বিশেষ সাধারণ সভার আয়োজন করা হয়। স্কুলের প্রতিষ্ঠাতাকালীন চেয়ারম্যান প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে এবং স্কুলের সাবেক সেক্রেটারি কমিউনিটি সংগঠক শাহ্‌ আলী আকবর এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় স্কুলের উন্নতিকল্পে মূল্যবান সুচিন্তিত মতামত প্রকাশ এবং নব প্রজন্মের সন্তানদের বাংলা শেখানোর লক্ষ্যে কার্ডিফ শাহ্‌জালাল বাংলা স্কুল পূণরায় খোলার মহতি উদ্যোগে সার্বিকভাবে সহযোগীতা করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করে বক্তব্য রাখেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতাকালীন ট্রেজারার প্রবীন মুরব্বী আব্দুল আহাদ চৌধুরী, প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব মোহাম্মদ রেনু মিয়া, প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম, আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান, আব্দুল কাদির, বকসি হারুনুর রশিদ, এম আকতারুজ্জামান কুরেসী নিপু, সাংবাদিক মকিস মনসুর আহমদ, শেখ মোহাম্মদ আনোয়ার, গোলাম মতুজা, খায়রুল ইসলাম, শেখ এম আতিকুজ্জামান, শাহ্‌ গোলাম কিবরিয়া, এস এ খাঁন লেনিন, কয়সর আলী, ফয়সল মোমিন, আব্দুল মোত্তালিব ও সেলিম চৌধুরী প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

সভায় সবার মতামতের ভিত্তিতে শাহ্‌জালাল বাংলা স্কুল পূণরায় খোলার যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহনের লক্ষ্যে প্রবীন মুরব্বী আলহাজ্ব মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা সাহেবকে চেয়ারম্যান, প্রবীন মুরব্বী আব্দুল আহাদ চৌধুরীকে ভাইস চেয়ারম্যান, কমিউনিটি সংগঠক সাংবাদিক মকিস মনসুর আহমদকে জেনারেল সেক্রেটারি.ও কমিউনিটি সংগঠক শেখ মোহাম্মদ আনোয়ারকে জয়েন্ট সেক্রেটারি এবং যুব সংগঠক এস এ খাঁন লেনিনকে ট্রেজারার ও শেখ এম আতিকুজ্জামানকে জয়েন্ট ট্রেজারার করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট শাহ্‌জালাল বাংলা স্কুলের পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়। পরর্বতীতে কমিটি বসে অন্যান্য পদবী বিতরন করাসহ বাংলা স্কুল পূণরায় খোলার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় করনীয় ঠিক করার প্রস্তাবাবলী পাশ করা হয়। পরিশেষে নব গঠিত কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ গোলাম মোস্তাফা ও জেনারেল সেক্রেটারি মকিস মনসুর আহমদ স্কুল পরিচালনার জন্য কমিউনিটির সবার সার্বিক সহযোগীতা কামনা করেছেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY