বিএনপি ক্ষমতায় এলে শ্রমজীবী মানুষের রক্ত ঝরে: ওবায়দুল কাদের

0
98

001_289430ঢাকা: বিএনপি ক্ষমতায় এলে শ্রমজীবী মানুষের ‘রক্ত ঝরে’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি পায়, সুযোগ-সুবিধা এবং নিরাপত্তা বাড়ে। অন্যদিকে বিএনপি ক্ষমতায় এলে শ্রমিকদের পেটে লাথি মারে, শ্রমজীবী মানুষের রক্ত ঝরে এদেশের মাটিতে।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘আমাদের আমলে দেশের কল-কারখানা, গার্মেন্টস শিল্প বৃদ্ধি পায়। শ্রমিকদের কর্মসংস্থান বাড়ে। বিএনপি ক্ষমতায় এসে কল-কারখানা বন্ধ করে মেহনতি মানুষকে বেকার করে।’

সোমবার মহান মে দিবস উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

সংগঠনের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, কার্যকরী সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

বর্তমান সরকারকে শ্রমিকবান্ধব দাবি করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘বিএনপি এর বিপরীত।’

শ্রমিকদের কাজের সময় আট ঘণ্টা রাখার দাবি জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আট ঘণ্টা শ্রমের দাবিতে এই মে দিবস। এ জন্য শ্রমিকরা রক্ত দিয়েছিল আমেরিকার শিকাগো শহরে। আজকে যারা মালিক, তাদের অধীনে যেসব শ্রমিক আছে তাদের কর্মঘণ্টা যেন আট ঘণ্টা বেঁধে দেয়া হয়। যদি তা না হয়, তাহলে এ মে দিবস করে লাভ কী?’

পরিবহন শ্রমিকদের কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘চালক তখনই বেপরোয়া হয়, যখন সে অতিরিক্ত সময় ড্রাইভিং করে। দূরপাল্লার একটি পরিবহনে একজন চালক বিরতি ছাড়া তিন-চারটা ট্রিপ দিয়ে থাকে। ফলে মানসিক-শারীরিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। এটা কমাতে চালকদের শ্রম ঘণ্টা কমিয়ে দিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন বাসা-বাড়ি, কল-কারখানায় দেখা যায়, ছোট ছোট শিশুরা কাজ করছে, এটা অমানবিক। অতিরিক্ত কাজ করাতে গিয়ে এ শিশুদের ওপর নির্যাতন করা হয়। এই শিশুশ্রম আমাদের দেশে বন্ধ করতে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here