বাংলাদেশ তিস্তা চুক্তির অপেক্ষায়: পানিসম্পদমন্ত্রী

0
81
mahmud-thumbnail_277576ঢাকা: ভারত তার আগের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি চূড়ান্ত করবে বলে প্রত্যাশা করছেন পানিসম্পদমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ চুক্তিটি চূড়ান্ত হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে। ভারতের সাবেক দুই প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ ও নরেন্দ মোদি এর আগেও বলেছিলেন তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি খসড়া চূড়ান্ত রয়েছে। পরে চূড়ান্ত রূপ নেবে বলে জানিয়েছিলেন। এটা ভারতের দুই প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত প্রতিশ্রুতি ছিল না। ছিল জনগণের সামনে দেওয়া প্রতিশ্রুতি।

বুধবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘ওয়ার্কশপ অন অ্যাসেসমেন্ট অব দ্য স্ট্যাট অব ওয়াটার রিসোর্সেস’ শীর্ষক কর্মশালা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পানিসম্পদমন্ত্রী। ‘ইনস্টিটিউট অব ওয়াটার মডেলিং (আইডবিল্গউএম)’ এর সহযোগিতায় পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়াধীন ‘ওয়াটার রিসোর্সেস পল্গানিং অর্গানাইজেশন (ওয়ারপো)’ এই কর্মশালার আয়োজন করে।

ওয়ারপো মহাপরিচালক এমডি সারাফত খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী এমডি নজরুল ইসলাম। আলোচনায় অংশ নেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমদ খান ও আইডব্লিউএমের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ড. এম মনোয়ার হোসাইন। মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন আইডবিল্গউএমের পরিচালক এসএম মাহবুবুর রহমান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন ভারত সফরকালে তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে কি-না, জানতে চাইলে পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল বলেন, এ বিষয়ে সময়ক্ষণ নির্ধারণ করে দিতে পারি না। তবে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার আন্তরিকভাবে তিস্তা চুক্তির ব্যাপারে কাজ করছে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ তিস্তার পানির যৌক্তিক ও ন্যায়সঙ্গত দাবির বাস্তবায়ন চায়। এটা শুধু দেশের কৃষি কাজের জন্য নয়, নদী রক্ষার জন্য ন্যায্য হিস্যা দরকার। দুই বছর আগে তিস্তার পানির প্রবাহ হঠাৎ করে বেশি হ্রাস পেয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here