বাংলাদেশে মিয়ানমারের সামরিক মহড়া!‘সঠিক পথে চলছে না বাংলাদেশ’

0
334

britis_ঢাকা: যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হুগো সোয়ার মনে করেন, বাংলাদেশের সমস্যা আছে এবং দেশটি সঠিক পথে চলছে না। মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষ হাউস অব কমন্সে বাংলাদেশ বিষয়ক সরাসরি প্রশ্ন-উত্তরে প্রতিমন্ত্রী একথা বলেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশে একের পর এক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বিরোধীদের দায়ী করে সরকারের তরফ থেকে যে ব্যাখ্যা দেওয়া হচ্ছে, তার সঙ্গে যুক্তরাজ্য একমত নয়।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হত্যাকাণ্ডের জন্য সংসদের বাইরে থাকা বিরোধী দলগুলোকে দায়ী করে বলছেন, ‘বিরোধীরা দেশকে অস্থিতিশীল করতে এসব করছে। তিনি ভুক্তভোগী লোকদের প্রতি ইসলাম অবমাননার দোষ চাপাচ্ছেন। আমরা মনে করি, সমস্যা এর চেয়েও আরও গভীরে।’

ব্রিটিশ এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, তিনি নিজেও মনে করেন, বাংলাদেশের সমস্যা আছে এবং দেশটি সঠিক পথে চলছে না। তবে তিনি বাংলাদেশের প্রতি অবরোধ আরোপের দাবি নাকচ করে দিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশ কমনওয়েলথের সদস্য। তাই যুক্তরাজ্য চায় কমনওয়েলথ বাংলাদেশের বিষয়ে আরও পদক্ষেপ নেবে। যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের গভীর সম্পর্ক রক্ষাকে তিনি স্বাগত জানান।

মঙ্গলবার পার্লামেন্টে পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ-বিষয়ক বিতর্কে বাংলাদেশ প্রসঙ্গে নির্ধারিত আলোচনায় সাতজন সদস্য বাংলাদেশে একদলীয় রাজনীতির উত্থান, মানবাধিকার পরিস্থিতি, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলোর বিষয়ে প্রশ্ন তোলেন। এসব বিষয়ে যুক্তরাজ্যের করণীয় সম্পর্কে জানতে চান। এমপিদের প্রশ্নের জবাব দেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক দায়িত্বে থাকা প্রতিমন্ত্রী হুগো সোয়ার।

একই দিন সন্ধ্যাকালীন অধিবেশনে ইউরোপ, মানবাধিকার এবং দেশে ও বিদেশে মানুষকে নিরাপদ রাখা শীর্ষক বিতর্কে আবারও আসে বাংলাদেশ প্রসঙ্গ। স্বতন্ত্র এমপি সায়মন ডানস্যুক বাংলাদেশে মানবাধিকার পরিস্থিতির উন্নয়ন, গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় যুক্তরাজ্যের হস্তক্ষেপ করা কেন জরুরি—সে বিষয়ে যুক্তি তুলে ধরেন।

LEAVE A REPLY