বলিউডের দ্বিতীয় স্ত্রীরা

0
74

21714_Binodon--Farjanaবিনোদন ডেস্ক:প্রেমে পড়লে নাকি মানুষ অন্ধ হয়ে যায়। আর তাই তো যুগে যুগে প্রেমের টানে কেউ যুদ্ধে নামে, কেউ ঘর ছাড়ে আর কেউবা জীবনকে রাঙায় অন্যরকম রঙে। সেরকম একটি রঙ হচ্ছে দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসা। এ বিষয়টি সাধারণের ক্ষেত্রে যেমন, তেমন সেলিব্রেটিদের বেলায়ও দেখা যায় অহরহ। আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলিউডের বেশ কিছু ডাকসাইটে তারকাই নাম লিখিয়েছেন দ্বিতীয় বিয়ের তালিকায়। সেই ধর্মেন্দ্র-হেমা মালিনীর যুগ থেকে শুরু করে হালের কারিনা কাপুর পর্যন্ত আছেন দ্বিতীয় বিয়ে করাদের দলে।–মানবজমিন।

হেমা মালিনী

এমনি এমনিই হেমা মালিনীকে ড্রিম গার্ল বলা হয় না। হেমার প্রেমে পড়ার পর তাকে বিয়ে করার জন্য ব্যাকুল হয়ে পড়েন ধর্মেন্দ্র। কিন্তু ধর্মেন্দ্রর প্রথম স্ত্রী তাকে বিয়ের অনুমতি দেননি। আর হিন্দু ধর্মেও দ্বিতীয় বিয়ে করার রীতি নেই। তাই হেমাকে বিয়ে করার জন্য হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে অন্য ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন ধর্মেন্দ্র।

শ্রীদেবী

৫২ বছরে পা রেখেও বয়স একটুও বাড়েনি এই পর্দাকন্যার। যে কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর মতো সামর্থ্য আছে তার। কিন্তু বিবাহিত বনি কাপুরের সঙ্গেই সাত পাকে বাঁধা পড়েন তিনি। শ্রীদেবীকে বিয়ে করার জন্য প্রথম স্ত্রী মোনাকে ডিভোর্স দেন বনি। বনির সঙ্গে শ্রীদেবীর সংসারের বন্ধন বেশ পোক্ত।

কারিশমা কাপুর

কারিশমা ও অভিষেক বচ্চনের বিয়ে প্রায় পাকাপাকি হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নানা জটিলতায় তা আর হয়নি। শিল্পপতি সঞ্জয় কাপুরের দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাকে। তবে নয় বছরের দাম্পত্য জীবন শেষে ২০১২ সালে বিচ্ছেদ ঘটান তারা।

শিল্পা শেঠি

ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রার ঘর ভাঙার জন্য শিল্পা শেঠিকেই বেশি অভিযুক্ত করা হয়। রাজের স্ত্রী কবিতা যখন তার প্রথম সন্তান দিলীনার জন্ম দেন তখনই ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় তাদের। এ বিচ্ছেদের জন্য কবিতা নিজেও শিল্পাকে দায়ী করেন। রাজ-শিল্পার সম্পর্কে অনেক বাধাও এসেছিল নানাদিক থেকে। কিন্তু কিছুতেই পিছপা হননি রাজ কুন্দ্রা। দ্বিতীয়বারের মতো ঘর বাঁধেন শিল্পা শেঠিকে নিয়েই।

লারা দত্ত

লারার সঙ্গে পরিচিত হওয়ার পরপরই নিজ স্ত্রীর বিরুদ্ধে ডিভোর্সের আবেদন করেন লন টেনিস খেলোয়াড় মহেশ ভূপতি। ২০১১ সালে বিয়ে করেন তারা। আড়াই বছর পরে জন্ম নেয়া একমাত্র সন্তান সায়রাকে নিয়ে সুখেই সংসার করছেন তারা।

বিদ্যা বালান

‘ডার্টি পিকচার’ খ্যাত এই মেধাবী অভিনেত্রী অবশ্য সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের তৃতীয় স্ত্রী। বিদ্যাকে বিয়ে করার আগে দুবার বিয়ে করেছিলেন সিদ্ধার্থ। ২০১২ সালের ডিসেম্বরে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন বিদ্যা বালান ও সিদ্ধার্থ রায় কাপুর।

কারিনা কাপুর

মাত্র ২১ বছর বয়সে অমৃতা সিংকে বিয়ে করেন সাইফ আলী খান। ১৩ বছর পর ডিভোর্স হয়ে যায় তাদের। তারপর সাইফ প্রেম শুরু করেন কারিনা কাপুরের সঙ্গে। ২০১২ সালে বিয়ে করেন তারা। এটি বলিউডের অন্যতম জমকালো বিয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here