বন্যার্তদের পাশে কেউ নেই: এরশাদ

0
70

003_305921সিলেট: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর কেউ নেই। তারা সবাই ব্যস্ত আগামী নির্বাচনে কিভাবে জয়ী হওয়ায় যায়। তারা সকলেই ব্যস্ত নিজেদের স্বার্থ নিয়ে।’

শুক্রবার দুপুরে ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর টোলপ্লাজা এলাকায় জাতীয় পার্টির উদ্যোগে বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এরশাদ আরও বলেন, ‘প্রতিদিন মৃত্যুর খবর ছাড়া কোনো খবর নাই। গুম-খুনের খবর ছাড়া কোনো খবর নাই। বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে, এবার আউশ ধানও নষ্ট হয়ে গেছে।’

তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টি থাকার কথা নয়, সবাই জেলে। আমি জেলে, আমার স্ত্রী জেলে। মানুষের ভালবাসায় দল এখনও আছে।’

সিলেটের শেরপুর ব্রিজ, বিশ্ববিদ্যালায় স্থাপনসহ নিজেদের সময়কার বিভিন্ন উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘এসব উন্নয়ন সিলেটের মানুষের প্রতি আমাদের ভালবাসার প্রমাণ।’

নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধ করতে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টিকে ফের ক্ষমতায় পাঠানোর আহ্বান জানান তিনি।

ওসমানীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সুফি মাহমুদের সভাপতিত্বে এবং যুব সংহতি নেতা ও সিলেট জেলা পরিষদ সদস্য আশিক মিয়ার পরিচালনায় ত্রাণ বিতরণ ও পথসভা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, জিয়াউদ্দিন আহমদ বাবলু, কাজী ফিরোজ রশিদ, মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক মুনিম চৌধুরী বাবু প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ওসমানীনগরের বন্যাকবলিত প্রায় সাড়ে ৪ হাজার পরিবারের সদস্যদের মধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে চাল, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়। তবে শুক্রবার একসাথে সকলকে তা বিতরণ করা সম্ভব হয়নি।

এর আগে এরশাদ সকাল সাড়ে ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে ওসমানীনগরে পৌঁছেন। পরে তিনি বন্যা কবলিত কিছু এলাকা পরিদর্শন করেন।জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর কেউ নেই। তারা সবাই ব্যস্ত আগামী নির্বাচনে কিভাবে জয়ী হওয়ায় যায়। তারা সকলেই ব্যস্ত নিজেদের স্বার্থ নিয়ে।’ শুক্রবার দুপুরে ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর টোলপ্লাজা এলাকায় জাতীয় পার্টির উদ্যোগে বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এরশাদ আরও বলেন, ‘প্রতিদিন মৃত্যুর খবর ছাড়া কোনো খবর নাই।

গুম-খুনের খবর ছাড়া কোনো খবর নাই। বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে, এবার আউশ ধানও নষ্ট হয়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টি থাকার কথা নয়, সবাই জেলে। আমি জেলে, আমার স্ত্রী জেলে। মানুষের ভালবাসায় দল এখনও আছে।’ সিলেটের শেরপুর ব্রিজ, বিশ্ববিদ্যালায় স্থাপনসহ নিজেদের সময়কার বিভিন্ন উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘এসব উন্নয়ন সিলেটের মানুষের প্রতি আমাদের ভালবাসার প্রমাণ।’ নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধ করতে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টিকে ফের ক্ষমতায় পাঠানোর আহ্বান জানান তিনি। ওসমানীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সুফি মাহমুদের সভাপতিত্বে এবং যুব সংহতি নেতা ও সিলেট জেলা পরিষদ সদস্য আশিক মিয়ার পরিচালনায় ত্রাণ বিতরণ ও পথসভা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, জিয়াউদ্দিন আহমদ বাবলু, কাজী ফিরোজ রশিদ, মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক মুনিম চৌধুরী বাবু প্রমুখ।  অনুষ্ঠানে ওসমানীনগরের বন্যাকবলিত প্রায় সাড়ে ৪ হাজার পরিবারের সদস্যদের মধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে চাল, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়। তবে শুক্রবার একসাথে সকলকে তা বিতরণ করা সম্ভব হয়নি।   এর আগে এরশাদ সকাল সাড়ে ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে ওসমানীনগরে পৌঁছেন। পরে তিনি বন্যা কবলিত কিছু এলাকা পরিদর্শন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here