বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে সন্ত্রাসীদের কোনো স্থান নেই-ফ্রান্স আওয়ামী লীগ

0
298

07162016_03_FRANCE_ALফ্রান্স : ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় এবং কিশোরগঞ্জে ঈদের জামাতে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে প্যারিসের ঐতিহাসিক রিপাবলিক চত্বরের ফ্রান্স আওয়ামী লীগের আয়োজনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে । গত শুক্রবার বিকাল ৪ ঘটিকায় শুরু হওয়া এই সমাবেশে শত শত নেতা-কর্মী অংশ গ্রহন করেন । এসময় সন্ত্রাস বিরোধী বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন বাংলাদেশ দেশী ও বিদেশি ষড়যন্ত্রে আক্রান্ত । খালেদা জিয়া জঙ্গিবাদের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ পাকিস্তান করতে চান।আওয়ামীলীগ খালেদা জিয়ার আশা পূর্ণ করতে দেবেনা বলেন ফ্রান্স আওয়ামীলীগের নেতারা। ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে কেনা স্বাধীনতায় অশুভ শুকুনেরা বার বার হানা দিয়ে আমাদের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্হ করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে । কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে দেশ এগিয়ে যাবে ।

তারা বলেন, সন্ত্রাসীদের কোনো ধর্ম, বর্ণ, জাত, রঙ ও জাতীয় পরিচয় নেই, বাংলাদেশে সন্ত্রাসীদের কোনো স্থান নাই। নিরীহ মানুষকে হত্যা ও ঘৃণা করার সুযোগ নাই, সেকুলার বাংলাদেশে জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের স্থান নাই, সন্ত্রাসবাদকে না বলুন এবং দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ হউন, সারাবিশ্বের সব সন্ত্রাসের ও হত্যাকাণ্ডের নিন্দায় আমরা ঐক্যবদ্ধ।

07162016_02_FRANCE_AL

এসময় গুলশান হত্যাকান্ড ও ফ্রান্সের নিস শহরে সন্ত্রাসী আক্রমণে নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয় এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়।ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি মহসিন খাঁন লিটনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক দিলওয়ার হোসেন কয়েছের উপস্হাপনায় প্রধান অতিথি ছিলেন ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবদুল্লাহ আল বাকী । আরো উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সিনিয়র সভাপতি মন্জুরুল ইসলাম সেলিম , সাবেক সহ-সভাপতি সুনাম উদ্দিন খালিক , নাসির চৌধুরী , জাকির হোসেন , মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক , আওয়ামী লীগ নেতা আশরাফুল ইসলাম , জসিম উদ্দিন ফারুক , সেলিম ওয়াদা সেলু , হারুনুর রশিদ , শাহীন আরমান চৌধুরী , আনোয়ার মজুমদার , সুমন বড়ুয়া , মিজানুর রহমান সরকার , কামাল হোসেন প্রমুখ । এসময় সমাবেশের প্রতি একাত্মতা ঘোষণা করে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ প্যারিস ফ্রান্স ,বৌধিষ্ঠ এসোসিয়েশন ,চট্টগ্রাম পরিষদ সহ বেশ কয়েকটি সংগঠন অংশগ্রহণ করে।