ফ্রান্সে জেল হত্যা দিবস পালিত

0
267

11072016_16_france_jail_hottaপ্যারিস,ফ্রান্স : ফ্রান্সে নানা কর্মসুচীর মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক জেল হত্যা দিবস পালিত হয়েছে । জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে ৬ অক্টবর রোববার বিকালে ফ্রান্স আওয়ামীলীগ আয়োজিত প্যারিসের গার দো নর্দের ক্যাফে প্যারিজিয়ানে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।মহান চার নেতার প্রতি সম্মান জানিয়ে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালনের মধ্যে দিয়ে ফ্রান্স আওয়ামীলীগের ধর্ম সম্পাদক সালেহ আহমদের পবিত্র কোরান তেলোয়াতের মধ্যে দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সভাপতি এমএ কাশেম।

ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান মুজিবের প্রাণবন্ত পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন,ফ্রান্স আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক উপদেষ্টা পরিষদের চেয়ারম্যান ওয়াহিদ বার তাহের,সিনিয়র সহসভাপতি মোহাম্মদ আবুল কাশেম,সহসভাপতি সোহরাব মৃর্ধা,সামাজিক উপদেষ্টা চেয়ারম্যান মিজান চৌধুরী মিন্টু,সহসভাপতি সাহেদ আলী,সৈয়দ ফয়সল ইকবাল হাসেমী,শুভ্রত ভট্রাচার্য্য শুভ,অবনী চন্দ্র গোপাল,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবি মোস্তফা হাসান,রানা চৌধুরী,নজরুল ইসলাম চৌধুরী,মাসুদ হায়দার,এমদাদুল হক স্বপন,ফয়সল উদ্দিন,নিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী হিরা,সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হোসেন,সৈয়দ রেজা শাকিল,খালেদ গোলাম কিবরিয়া,জহিরুল হক বিপ্লব,সেলিম উদ্দীন,আলী আহমেদ জুবের,প্রচার সম্পাদক আমিন খাঁন হাজারী,আন্তর্জাতিক সম্পাদক তাপস বড়ুয়া রিপন,মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম দুলাল,যুব সম্পাদক সোহেল আহমেদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সালেহ আহমেদ ও বাসু গোস্বামী,বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক কাউসার মোড়ল , স্বাস্হ্য বিষয়ক সম্পাদক মাসুম আহমেদ,কোষাধ্যক্ষ প্রদীপ চন্দ্র,জন সংযোগ সম্পাদক তাজ উদ্দিন,সহ দপ্তর সম্পাদক জাহেদ উর রশিদ,সহ মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক বেদার খাঁন,সহ শিশু বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মান্নান,সহ প্রচার সম্পাদক মহি উদ্দিন সোহেল,সহ সমাজ কল্যাণ সম্পাদক বেলাল আহমেদ , কার্যকরী সদস্য আহমেদ হাসান,রেজাউল করিম রনি,ওমর ফারুক ও সাংবাদিক দেবেশ বড়ুয়া প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, জাতীর জন্য এ দিনটি একটি কলঙ্কের দিন । এই কলঙ্কিত হত্যাকান্ডই প্রমাণ করে যে, বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ড ছিল বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। কারন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীরা ঠিকই জানত, এই চারজন যদি বেঁচে থাকেন তবে ঠিকই বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিতে পারবে, যেমন তাঁরা দিয়েছিল ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে। তাই এদিনে দেশের চার নেতাকে হত্যা করে হত্যাকারীরা বাংলাদেশকে ধবংস করতে চেয়েছিল। এসময় বক্তারা দেশের সকল অশুভ শক্তিকে বিনাশ করে সত্য ও সুন্দর আগামীর বাংলাদেশ বিনির্মানে সকলের অংশগ্রহনের আহবান জানান।