ফিলিস্তিনি কিশোরের ওপর ইসরাইলি বর্বরতার ভিডিও প্রকাশ

0
88

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ইসরাইলি দখলদার বাহিনীর নির্মমতা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও কিছু মিত্র মুসলিম দেশের প্রত্যক্ষ মদদে ফিলিস্তিনিদের ওপর তাদের অমানষিক নির্যাতনের কথা এখন সবারই জানা।

ফিলিস্তিনিরা নিজেদের ভূমি দখলের প্রতিবাদে ইট-পাটকেল ছুড়লে তাদের লক্ষ্য করে নির্বিচারে গুলি-বোমা ছোড়ে ইসরাইলি সেনারা।

সম্প্রতি ১৫ বছরের এক ফিলিস্তিনি কিশোরের ওপর ভয়াবহ নিষ্ঠুরতার নতুন একটি ভিডিও টেপ ঘিরে ইসরাইলি বর্বরতার বিষয়টি আলোচনায় এসেছে।

ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়া ভিডিও টেপে দেখা যায়, কোনো রকম উস্কানি ছাড়াই ইসরাইলের এক বর্বর সেনা সদস্য ১৫ বছরের এক কিশোরের ওপর রাইফেল নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। সে মাথা ও মুখে আঘাত করায় ফিলিস্তিনি কিশোরটি রক্তে ভেসে যায়।

গত নভেম্বরে ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে এ ঘটনা ঘটে।  ইসরাইলি এনজিও বি’তসেম’র এক কর্মী ভিডিওটি ধারণ করেন।

বৃহস্পতিবার ইসরাইলি সংবাদপত্র হারেৎজের হাতে ভিডিওটি এসে পৌঁছায়।

ভিডিওতে দেখা যায়, এক ইসরাইলি সেনা সদস্য ফিলিস্তিনি এক কিশোরের মুখ ও মাথায় রাইফেলের বাট দিয়ে আঘাত করে। এতে ওই কিশোরের মাথা ফেঁটে রক্ত ঝরতে থাকে ও সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় ওই সময় ওই এলাকায় ফিলিস্তিনিদের কোনো সভা-সমাবেশ বা বিক্ষোভ ছিল না। কোনো রকমের উস্কানি ছাড়াই ইসরাইলি এক সেনা ফিলিস্তিনি কিশোরটির ওপর নির্যাতন চালায়।

ইহুদিদের বার্ষিক তাওরাত পাঠ সপ্তাহ চলাকালে ফিলিস্তিনি শিশুর ওপর নির্যাতনের ওই ঘটনা ঘটেছিল।

ওই সময় পশ্চি তীরের হেব্রোন এলাকায় প্রচুর দখলদার ইহুদি জড়ো হয়। এই যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে সে সময় শহরটিতে ফিলিস্তিনিদের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এসময় প্রচুর ইসরাইলি সেনা সদস্য পুরো এলাকা ঘিরে রাখে।

প্রসঙ্গত, গত ৬ ডিসেম্বর পবিত্র জেরুজালেম শহরকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এর প্রতিবাদে ফিলিস্তিনিরা তৃতীয় ইনতিফাদা বা গণপ্রতিরোধ কর্মসূচি পালন করছেন। বিশ্বব্যাপীও ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের সাত দশকের দখলদারির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হচ্ছে।

এমন এক সময়ে ফিলিস্তিনি কিশোরের ওপর পৈশাচিক নিষ্ঠুরতা চালানোর ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়েছে। এর ফলে বিশ্বব্যাপী সমালোচিত রাষ্ট্র ইসরাইল আরও বেশি কোনঠাসা হয়ে পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here