ফাইনালে জিততে ভাগ্য লাগে: দুর্জয়

0
84

স্পোর্টস ডেস্ক: বিগত নয় বছরে ঘরের মাঠে চারটি টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেও শেষ পর্যন্ত শিরোপা নিশ্চিত করতে পারেনি বাংলাদেশ। ফাইনালে এই না পাওয়ার কারণ হিসেবে ভাগ্যকেই দুষছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয়।

২০০৯ সালের ত্রিদেশীয় সিরিজ। ২০১২ ও ২০১৬ সালের এশিয়া কাপের ফাইনাল। আর শনিবার ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল। এনিয়ে চারটা সিরিজের ফাইনালে খেলেও জয়ের দেখা পায়নি বাংলাদেশ।

ভাগ্য ফেভার করেনি বলেই ট্রফির লড়াইয়ে বারবার হোচট খাচ্ছে বাংলাদেশ। এমনটিই বলছেন বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক। শনিবার মিরপুরে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল শেষে দলের পরাজয় নিয়ে যুগান্তর অনলাইনকে দুর্জয় বলেন, আসলে ফাইনালে জিততে হলে ভাগ্য লাগে। ফাইনাল ম্যাচকে ফাইনাল মনে করে খেললেই প্রেসার চলে আসে। এ কারণে আমরা আমরা সুযোগ পেয়েও বারবার হোচট খাচ্চি।

শ্রীলংকার ছুড়ে দেয়া ২২২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৪২ রানে অলআউট বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব নিয়ে জাতীয় দলের সাবেক এ অধিনায়ক বলেন, ব্যাটসম্যানরে দায়িত্ব কী সেটাতো ম্যাচের আগেই সবাই জানে। এতোদিন খেলার পর সবার দায়িত্ব সম্পর্কে জানা উচিৎ।

অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে হবে, মাঠে অ্যাপ্লাই করতে হবে। এটা করতে না পারায় এমন পরাজয়। ২২২ রান তাড়া করাটা কঠিন ছিল? এমন প্রশ্নের জবাবে দুর্জয় বলেন, আমি বলব না এটা খুব সহজ ছিল। তবে ওরাও ২২১ রান করতে অনেক লড়াই করেছে। আমাদেরও ওই লড়াইটা করা উচিৎ ছিল। আমাদের সেরা ক্রিকেটার সাকিব ইনজুরিতে পড়ে গেল। তারপরও আমি বলব আমাদের পারা উচিৎ ছিল।

এই শ্রীলংকার সঙ্গেই ক’দিন পর টেস্ট,ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টির দ্বিপাক্ষিক সিরিজ শুরু হবে। সেই সিরিজ নিয়ে জাতীয় দলের সাবেক এ অধিনায়ক বলেন, ত্রিদেশীয় সিরিজের শুরুতে শ্রীলংকাও কিন্তু ভালো করতে পারেনি। তারা সেখান থেকে কামব্যাক করেছে। আশা করি বাংলাদেশও সেটা করতে পারবে। তাছাড়া চট্টগ্রামে টেস্ট হবে। সেখানে আমাদের জয়ের ভালো স্মৃতি আছে। আমি মনে করি সেখান থেকেই আবার জয়ে ফিরতে পারব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here