প্রাকৃতিক উপায়ে রক্ত শোধন করবেন যেভাবে

0
32

স্বাস্থ্যসেবা ডেস্ক ॥
সারা শরীরে অক্সিজেন সরবরাহ, হরমোন, শর্করা, ফ্যাট এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঠিক রাখার জন্য মাঝেমধ্যে রক্ত পরিশুদ্ধ করা প্রয়োজন। বিভিন্ন ধরনের খাবার, দূষণ এবং চাপের কারণে প্রতিদিনই শরীরে টক্সিন জমা হয়। বিষক্রিয়া পরিষ্কার কিংবা ডিটক্সিফিকেশনের মাধ্যমে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে, ত্বক এবং শারীরিক কার্যক্রমও ঠিক থাকে। প্রাকৃতিকভাবে মাঝেমধ্যে রক্ত শোধন করলে ফুসফুস, কিডনি এবং লিভারের কার্যকারিতাও বাড়ে।

কিছু কিছু খাবার আছে যেগুলো রক্ত শুদ্ধ করতে সাহায্য করে।

ব্রকলি: এটি এমন একটি সবজি যা শরীর থেকে টক্সিন বের করতে সাহায্য করে। ব্রকলিতে ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি, ওমেগা থ্রি ফ্রাটি এসিড, ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ফসফরাস থাকে। নিয়মিত ব্রকলি খেলে এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রক্ত শোধন করতে ভূমিকা রাখে। সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

ফল: বিভিন্ন ধরনের ফল যেমন— আপেল, তাল, নাশপাতি এবং পেয়ারাতে উপকারী ফাইবার রয়েছে যা রক্ত শুদ্ধ করতে সাহায্য করে। এছাড়া এইসব ফল রক্তে জমে থাকা অতিরিক্ত ফ্যাট, বর্জ্য ইত্যাদি দূর করে। এগুলো ছাড়া জাম, ক্যানবেরি, ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি— এগুলো রক্ত শুদ্ধ করতে সহায়ক হিসেবে কাজ করে।

সবুজ শাক: পালং শাক, লেটুস পাতা, সরিষা শাক ইত্যাদিতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, রক্ত শোধন করে। এই সব শাক লিভারে এইনজাইম বাড়ায় যা রক্ত শুদ্ধ করতে কাযর্কর ভূমিকা রাখে।

গুড়: এতে থাকা ফাইবার হজমশক্তি বাড়ায়, কোষ্টকাঠিণ্য কমায় এবং শরীর থেকে বর্জ্য বের করতে সাহায্য করে। গুড়ে প্রচুর পরিমাণে আয়রণ থাকে যা শরীরের রক্ত প্রবাহ ঠিক রাখে। সেই সঙ্গে রক্ত পরিশুদ্ধও করে।

পানি: রক্ত শোধনের অন্যতম সহজ উপায় হল পর্যাপ্ত পানি পান। প্রতিদিন অন্তত ৮ গ্লাস পানি পান করলে তা কিডনির কার্যকারিতা ঠিক রাখে। আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় বলা হয়, সকালে খালি পেটে এক গ্লাস হালকা গরম পানি পান করলে তা রক্ত শোধনে ভূমিকা রাখে।

সূত্র: এনডিটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here