প্রসব বেদনার হাত থেকে মুক্তি পেতে এক নয়া ট্রেন্ড!

0
197

14317342_622017474634880_2828706572825699946_nধূমপান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। শুধু তাই নয়, তা ক্ষতি করতে পারে গর্ভস্থ শিশুটিরও। কিন্তু তা সত্ত্বেও গর্ভাবস্থায় তারা ধূমপান করছে কেবলমাত্র প্রসব বেদনার হাত থেকে নিষ্কৃতি পেতে।

গর্ভবতী অবস্থায় মহিলাদের শরীরের বাহ্যিক ও আভ্যন্তরীণ ক্ষেত্রে একটা ব্যপক পরিবর্তন ঘটে যায়। তাই শরীরের সঙ্গে সঙ্গে মনেরও পরিবর্তন ঘটে।

এর ফলস্বরূপ শরীরের ব্যথা এবং ফোলাভাব, মর্নিং সিকনেস প্রভৃতি আনুষঙ্গিক সমস্যাও দেখা দিতে পারে। একজন মহিলা যতই মাতৃত্বের ভার বহনে সক্ষম হোন না কেন, একটা সম্পূর্ণ নতুন জগতে পা রাখার আগে একটা ভয় মনের মধ্যে বাসা বাঁধে। এই অবস্থায় ভেবে দেখুন, মাতৃত্বের কোনও পরিকল্পনা না করেই কীভাবে টিনএজার হবু মায়েরা এই পিরিয়ডের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন!

শিশুদের জন্ম দেওয়ার সময়ে মায়ের প্রসব বেদনার যে কষ্ট তা হয়তো অন্য কোনও যন্ত্রণার সঙ্গে তুলনা করাই যায় না। কিন্তু বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার অধিকাংশ কিশোরী মায়েরা ফলো করেছেন এক নয়া ট্রেন্ড।

প্রসবের সময়ে কষ্ট কম করার জন্য গর্ভবতী অবস্থায় তারা ধূমপান করছে। কারণ, সেখানে সিগারেটের প্যাকেটের গায়ে একটা সতর্কবাণী লেখা থাকে যে, ধূমপান করলে আসন্ন শিশুটির ওজন কমে যায়। তাই প্রসব বেদনা কম করার জন্য এই ধরনের অভ্যাসের শুরু। সুস্থ-সবল শিশুর থেকে ছোট্ট শিশুই বেশি পছন্দ করছে বর্তমার প্রজন্মের মেয়েরা।

অস্ট্রেলিয়ান ন্যশনাল ইউনিভার্সিটির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, সিগারেটের প্যাকেটে লেখা ওই সতর্কবাণী দেখেই হবু কিশোরী মায়েরা এটিকে একটি ট্রেন্ড হিসাবে নিয়েছে। কিন্তু আদতে এই সতর্কবার্তা গর্ভবতী মায়েদের জন্যই লেখা হয়েছে যাতে তারা সাবধানতা অবলম্বন করেন। কিন্তু, বিষয়টিকে তারা অন্যভাবে গ্রহণ করছে।

এইসব কিশোরী গর্ভবতী মায়েরা আর একটি অদ্ভুত অজুহাত খাড়া করেছেন। তা হল— শিশু সন্তানটি যদি কন্যা হয়, তাহলে সে ওজনে হালকা ও ছোট্ট হলে তাকে দেখতে লাগবে খুব মিষ্টি। কিন্তু আদতে শিশুটির যে কতখানি ক্ষতি হচ্ছে তা তারা ভাবতেও পারছ না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here