প্যারাডাইস পেপারস, ম্যান্ডেলাও তালিকায়

0
51

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: প্যারাডাইস পেপারসের ফাঁস হওয়া নথিতে উঠে এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ-বিরোধী কিংবদন্তি নেতা প্রয়াত নেলসন ম্যান্ডেলার নাম। বলা হচ্ছে, একটি বিদেশি ট্রাস্ট কোম্পানির সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। প্রতিষ্ঠানটির নাম ম্যাড। ম্যান্ডেলা দক্ষিণ আফ্রিকায় মাদিবা নামে পরিচিত। এই নামেরই সংক্ষিপ্ত রূপ ম্যাড। ম্যাড ট্রাস্টের বিদেশি অ্যাকাউন্টে ছিল অন্তত ২১ লাখ ডলার। বৃহস্পতিবার সিপিআইজের নতুন করে প্রকাশিত নথিতে এসব তথ্য উঠে আসে।

আইরিশ সাগরে ব্রিটিশ নিয়ন্ত্রিত আইল অব ম্যানে ১৯৯৫ সালে এই ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠা করা হয়। এর আগের বছর বর্ণবাদবিরোধী বিপ্লবের সফলতা ঘরে তোলেন তিনি, নির্বাচিত হন দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ পরবর্তী প্রথম প্রেসিডেন্ট।

২০১৫ সাল পর্যন্ত বিদেশের মাটিতে এই কাগুজে ট্রাস্টের কথা সম্পূর্ণ গোপন ছিল। তবে ম্যান্ডেলার ২১ লাখ ডলারের বিদেশি অ্যাকাউন্টের অর্থ ফিরে পেতে তার আইনি পরামর্শকরা অ্যাপেলবির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন সে বছর। তখন অ্যাপেলবি ‘অতি গোপনীয়’ অভিহিত করে সেই অ্যাকাউন্টের হিসাব-নিকাশের একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ প্রস্তুত করে। প্যারাডাইস পেপারসের নথিতে সেই বিবরণটিও অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

এদিকে ম্যান্ডেলার আইনি পরামর্শকরা দাবি করেছেন, ওই ট্রাস্ট ও অর্থ সাবেক প্রেসিডেন্টের। অন্যদিকে, ম্যাড ট্রাস্টের প্রশাসনিক দায়িত্বে ছিলেন এবং ম্যান্ডেলার এক সময়ের বন্ধু ও উকিল এমন একজন দাবি করেছেন, এ অর্থ ম্যান্ডেলার নয়, একটি দাতব্য সংস্থার। বলা হচ্ছে, ২০১৫ সালে ম্যান্ডেলার সম্পত্তি দেখাশোনাকারীরা দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যান্ডেলারই এক সময়ের আইনি পরামর্শক ইসমাইল আয়ুবের বিরুদ্ধে মামলা করে। সে মামলায় আয়ুবকে চাপ দেওয়া হয় অর্থ ফেরত দিতে। বর্তমান আইনি পরামর্শকদের দাবি, আয়ুব ম্যান্ডেলার অজ্ঞাতে ম্যাড ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠা ও ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলেছিল। অ্যাকাউন্টে তখন ম্যান্ডেলার ২১ লাখ ডলার রয়েছে বলে দাবি করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here