পুলিশি বাঁধায় হেফাজতের মিয়ানমার দূতাবাস ঘেরাও পণ্ড

0
109

hefajot2ঢাকা: মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধের দাবিতে হেফাজতে ইসলামের ঢাকায় মিয়ানমার দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি পুলিশের বাঁধায় পণ্ড হয়েছে। তবে, রোহিঙ্গাদের অধিকার নিশ্চিত করতে সংগঠনের পক্ষ থেকে মিয়ানমার সরকারের কাছে বাংলাদেশে দেশটির রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে।

০১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে মিয়ানমার দূতাবাস ঘেরাওয়ের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি উপলক্ষে সকালে পল্টন মোড়ে জড়ো হন হেফাজতের কয়েক হাজার নেতাকর্মী। তারা ওই এলাকায় বিক্ষোভ এবং মিছিল করলেও তাদেরকে গুলশানের দিকে যেতে দেয়নি পুলিশ। পরে সংগঠনের নায়েবে আমির নুর হোসেন কাসেমীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল চিঠি নিয়ে মিয়ানমার দূতাবাসে যায়। তারা হেফাজত আমির আহমেদ শাহ শফীর সই করা চিঠিটি পৌঁছে দেন।

হেফাজতের কর্মসূচিতে সম্ভাব্য গোলযোগ এড়াতে ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। মোতায়েন করা হয় জল কামান এবং সাঁজোয়া গাড়ি। দায়িত্ব পালন করে বিপুল সংখ্যক পুলিশ।

মিয়ানমারকে দেওয়া চিঠিতে মোট পাঁচটি দাবি উল্লেখ করে হেফাজতে ইসলাম।

>রোহিঙ্গা মুসলিম গণহত্যা বন্ধ এবং তাদের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

>রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে (মিয়ানমারে) স্থায়ী ও শান্তিপূর্ণভাবে বসবাসের ব্যবস্থা করতে হবে। যাদেরকে দেশ থেকে বিতাড়িত করা হয়েছে এবং যারা দেশ ছেড়ে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে, তাদেরকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে পূর্ণ নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করা।

>রোহিঙ্গাদের জীবন রক্ষার নিশ্চয়তা বিধানকল্পে বলিষ্ঠ পদক্ষেপ দেওয়া।

>রোহিঙ্গাদের গণহত্যায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা।

>আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলোকে নির্বিঘ্নে কাজ করতে দেওয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here