পুনরায় জন্ডিস হওয়া প্রতিরোধ করার কিছু টিপস

0
275

maxresdefault_26লিভারের কোন সমস্যা থাকলেই মানুষ জন্ডিসে আক্রান্ত হয়। রক্তে বিলিরুবিনের  অধিক মাত্রায় উপস্থিতিই জন্ডিস হওয়ার কারণ। লিভারের স্বাভাবিক কাজের মাধ্যমে লাল রক্ত কণিকা ভেঙ্গে বিলিরুবিন উৎপন্ন হয় এবং পিত্ত রসের সাথে শরীর থেকে বাহির হয়ে যায়। লিভার যখন ঠিকভাবে কাজ করেনা তখন বিলিরুবিন শরীর থেকে বাহির না হয়ে ত্বকের উপরিভাগে জমা হতে থাকে। তখন ত্বক, নখ ও চোখ হলুদ দেখায়।

জন্ডিস নিজে কোন রোগ নয় বরং অন্তর্নিহিত স্বাস্থ্য সমস্যার লক্ষণ প্রকাশ করে। লিভারের কার্যকারিতা কমে যাওয়া ও ইনফেকশনের লক্ষণ প্রকাশ করে জন্ডিস। জন্ডিস একবার হওয়ার পর পুনরায় হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সাধারণত গ্রীষ্ম ও বর্ষাকালে জন্ডিসের প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। সংক্রমিত পানি ও অস্বাস্থ্যকর খাবারের মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে জন্ডিস। জন্ডিস পুনরায় হওয়া প্রতিরোধ করার কিছু উপায় সম্পর্কে জানবো আজ।

১। যদি আপনি হেপাটাইটিস এ তে আক্রান্ত হন এবং পর্যাপ্ত চিকিৎসা গ্রহণ করেন তাহলে আপনার পুনরায় হেপাটাইটিস এ তে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম। কিন্তু হেপাটাইটিস ই তে আক্রান্ত হলে পুনরায় আক্রান্ত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা থাকে, এমনকি তা ১৫-২০ দিনের মাথায়। হেপাটাইটিস ই এর কোন টিকা নেই। হেপাটাইটিস এ এর টিকা আছে। ছাত্র ও পেশাজীবীরা জন্ডিসে আক্রান্ত হলে পুনরায় কাজে যোগদানের পূর্বে পরিপূর্ণ সুস্থতার জন্য পূর্ণ বিশ্রামে থাকা আবশ্যক।

২। হেপাটাইটিস এ ও হেপাটাইটিস ই উভয়েই সংক্রমিত পানির মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে। পুনরায় জন্ডিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি মুক্ত থাকার জন্য স্ট্রিট ফুড খাওয়া এড়িয়ে চলতে হবে এবং বাহিরে খাওয়াও বাদ রাখুন কিছুদিন। বর্ষায় সংক্রমণের সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।

৩। ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। সব সময় হাত ও পা পরিষ্কার রাখুন। বাহির থেকে ফিরে ভালোকরে হাত ধুয়ে ফেলুন।

৫। বর্ষায় ঘরের খাবার খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকেরা। রান্নার পূর্বে শাকসবজি ও ফলমূল কলের পানিতে ভালো করে ধুয়ে নিন। সংক্রমণ এড়াতে সবজি ভালো করে রান্না করুন।

৬। যদি অ্যালকোহল গ্রহণের অভ্যাস থাকে তাহলে তা আপনার জন্ডিসের প্রবণতা বৃদ্ধি করে। যদি আপনার একবার জন্ডিস হয়ে থাকে তাহলে অ্যালকোহল সেবনের অভ্যাস ত্যাগ করুন পুনরায় জন্ডিস হওয়ার সম্ভাবনা কমাতে।

৭। আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে তুলুন উচ্চমাত্রার ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খেয়ে এবং  প্রক্রিয়াজাত খাবার বাদ দিয়ে। পুনরায় অসুস্থ হওয়া এড়াতে কিছু সুপার ফুড যেমন- দই, আদা, হলুদ ও তাজা ফল যুক্ত করুন আপনার খাদ্য তালিকায়। বর্ষায় ঠান্ডা সালাদ খাওয়া এড়িয়ে চলুন এবং নিরাপদে থাকার জন্য রান্না করা খাবার খান।

৮। সবসময় ফুটানো পানি পান করুন। ফুটানো পানি ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ ঠেকাতে পারে।

৯। তেল ও মসলাজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। কারণ এ ধরণের খাবার সহজে হজম হয়না এবং লিভারের উপর বাড়তি চাপ দেয়।

১০। পুনরায় জন্ডিস দেখা দেয়ার অর্থ আপনার লিভারের কোন অন্তর্নিহিত সমস্যা। তাই সঠিকভাবে রোগ নির্ণয়ের মাধ্যমে চিকিৎসার ব্যবস্থা নিন।