পাকিস্তানে চীনা রাষ্ট্রদূতকে খুনের ষড়যন্ত্র!

0
88

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূতের ওপর হামলার আশঙ্কা রয়েছে বলে পাক সরকারকে জানিয়েছে বেইজিং। চীনের তরফ থেকে রাষ্ট্রদূতের নিরাপত্তা অবিলম্বে বাড়ানোর দাবিও জানানো হয়েছে।

পাকিস্তানকে চীন জানিয়েছে, নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন ইস্ট তুর্কিস্তান ইসলামিক মুভমেন্ট (ইটিআইএম) পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূতকে খুন করার ছক কষেছে এবং তাকে খুনের উদ্দেশ্য নিয়ে এক জঙ্গি এরই মধ্যে পাকিস্তানে ঢুকেছে। খবর ইন্ডিয়ার টুডের।

সম্প্রতি পাকিস্তানে রাষ্ট্রদূত বদল করেছে চীন। এতদিন যিনি আফগানিস্তানে চীনা দূত হিসেবে কাজ করছিলেন, সেই ইয়াও চিংকে এবার পৃথিবীর সবচেয়ে বড় চীনা দূতাবাস সামলানোর দায়িত্ব দিয়ে ইসলামাবাদে পাঠানো হয়েছে। আর গত তিন বছর যিনি ইসলামাবাদে ছিলেন, সেই সান ওয়েইডংকে দেশে ফিরিয়ে নিয়েছে বেইজিং। কিন্তু ইয়াও চিং’র শুরুটা মোটেই সুখকর হচ্ছে না।

চীনা গোয়েন্দারা খবর পেয়েছেন, ইটিআইএম জঙ্গিরা চিংকে খুনের চক্রান্ত করেছে। চীনা রাষ্ট্রদূতকে খুন করার দায়িত্ব যে জঙ্গি পেয়েছে, সে এরই মধ্যে পাকিস্তানে ঢুকেও পড়েছে বলে দাবি চীনের।

৫ হাজার ৭০০ কোটি ডলার বিনিয়োগে তৈরি চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডরের (সিপিইসি) নিরাপত্তা নিয়ে এমনিতেই চিন্তায় বেইজিং। পাকিস্তানের হাত থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার দাবিতে লড়তে থাকা বেলুচরা তো বটেই, আরও বেশ কয়েকটি জঙ্গি সংগঠনের নিশানায় রয়েছে চীন-পাক অর্থনৈতিক করিডর। পাকিস্তানের সেনা এবং পুলিশ করিডরের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে অত্যন্ত তৎপর। কিন্তু পাক নিরাপত্তা ব্যবস্থার ওপর সম্পূর্ণ ভরসা করে না বেইজিং। তাই চীনা গোয়েন্দারাও সবসময় সক্রিয় থাকেন পাকিস্তানে।

গোয়েন্দা সূত্রেই সিপিইসি কর্তৃপক্ষ এবার জানতে পেরেছেন, শুধু করিডরের ওপর নয়, চীনা রাষ্ট্রদূতের ওপর হামলার ছকও কষছে জঙ্গিরা। তাই সিপিইসি প্রকল্পের অন্যতম শীর্ষকর্তা পিং য়িং ফি ১৯ অক্টোবর চিঠি পাঠিয়েছেন পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয়কে। আবদুল ওয়ালি নামে এক জঙ্গিকে এটিআইএম পাকিস্তানে ঢুকিয়েছে বলে সিপিইসির চীনা কর্মকর্তা চিঠিতে লিখেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here