পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে ভারত

0
10

স্পোর্টস ডেস্ক: পৃথিবীর যে কোনো প্রান্তে ক্রিকেট ম্যাচে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হলেই বেজে ওঠে যুদ্ধের দামামা। কিন্তু এবারের এশিয়া কাপে গ্রুপপর্বে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর বহুল প্রার্থিত লড়াইটা ছড়াতে পারেনি কোনো উত্তাপ।

একপেশে ম্যাচে পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে আট উইকেটের বিশাল জয় তুলে নিয়েছিল ভারত। চার দিনের ব্যবধানে রোববার দুবাইয়ে সুপার ফোরের হাইভোল্টেজ ম্যাচে আবারও ভারতের কাছে অসহায় আত্মসমপর্ণ করল পাকিস্তান।

এদিনও টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে টপঅর্ডারের ব্যর্থতায় দেড়শ’র নিচে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা জাগিয়েছিল পাকিস্তান। তবে অভিজ্ঞ শোয়েব মালিকের চওড়া ব্যাটে শুরুর ধাক্কা সামলে শেষ পর্যন্ত সাত উইকেটে ২৩৭ রানের মান বাঁচানো একটা পুঁজি পায় পাকিস্তান।

এই লক্ষ্য অনায়াসেই টপকে যায় ভারত। দুই ওপেনার রোহিত শর্মা (১১১*) ও শিখর ধাওয়ানের (১১৪) জোড়া সেঞ্চুরিতে নয় উইকেটের বড় জয় পেয়েছে তারা। উইকেটের হিসাবে পাকিস্তানের বিপক্ষে এটাই ভারতের সবচেয়ে বড় জয়।

এই জয়ে সবার আগে ফাইনাল নিশ্চিত করল রোহিত শর্মার দল। অপর ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে হেরে ফাইনালের স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে আফগানিস্তানের। আবুধাবিতে ২৫০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে আফগানরা সাত উইকেটে ২৪৬ রানে থামে। বুধবার বাংলাদেশ ও পাকিস্তান ম্যাচের জয়ী দল যাবে ফাইনালে।

২৩৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে পাকিস্তানের শক্তিশালী বোলিং লাইনআপকে পাত্তাই দেননি ধাওয়ান ও রোহিত। সেঞ্চুরি তুলে নেন দু’জনই। উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে রেকর্ড ২১০ রান। ক্যারিয়ারের ১৫তম সেঞ্চুরির পর ধাওয়ান ১১৪ রানে দুর্ভাগ্যজনকভাবে রানআউট হন। ১৯তম সেঞ্চুরি করা রোহিত অপরাজিত থাকেন ১১১ রানে। এবার এশিয়া কাপে ধাওয়ানের এটি দ্বিতীয় সেঞ্চুরি।

দু’দলই সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে পেয়েছে জয়। ভারত বাংলাদেশকে অনায়াসে হারালেও আফগানিস্তানকে হারাতে ঘাম ছুটে গিয়েছিল পাকিস্তানের। শোয়েব মালিকের হার না মানা ফিফটিতে শেষ ওভারে জয়ের ঠিকানায় পৌঁছেছিল সরফরাজ আহমেদের দল।

কাল ভারতের বিপক্ষেও সেই মালিকই টানলেন পাকিস্তানকে। টপঅর্ডারের সেরা তিন ব্যাটসম্যান ইমাম-উল-হক (১০), ফখর জামান (৩১) ও বাবর আজম (৯) মাত্র ৫৮ রানের মধ্যেই সাজঘরের পথ ধরার পর চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক সরফরাজকে নিয়ে ১০৭ রানের জুটি গড়ে দলকে কক্ষপথে ফেরান মালিক।

সরফরাজ ৪৪ রানে ফিরলেও মালিক তুলে নেন টানা দ্বিতীয় ফিফটি। ৯০ বলে চার বাউন্ডারি ও দুই ছক্কায় সর্বোচ্চ ৭৮ রান করা মালিককে ফেরান বুমরাহ। এরপর আসিফ আলী (৩০) ও মোহাম্মদ নওয়াজের (১৫*) ব্যাটে ২৩৭ পর্যন্ত যায় পাকিস্তান। ভারতের পক্ষে জাসপ্রিত বুমরাহ, যুজবেন্দ্র চাহাল ও কুলদীপ যাদব নিয়েছেন সমান দুটি করে উইকেট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here