পরমাণু বোমার তেজস্ক্রিয়তা থেকে যেভাবে বাঁচা যায়

0
13

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: উত্তর কোরিয়া আর যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে চলছে হুমকি-পাল্টা হুমিক। উত্তর কোরিয়া ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিতে পারমাণবিক বোমা হামলার ঘোষণা দিয়েছে। এ প্রেক্ষিতে পারমানবিক বোমা হামলা হলে তেজস্ক্রিয়তা থেকে বাঁচতে নাগরিকদের জন্য বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

পারমাণবিক বোমার তেজস্ক্রিয়তা থেকে বাঁচার কৌশলগুলো নিম্নে দেয়া হল-

দূরত্ব: পরমাণু বোমা বিস্ফোরণের পর বিস্ফোরণস্থল থেকে যত দূর সম্ভব নিজেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া। বিস্ফোরণস্থল থেকে ১০০ মাইল দূরে থাকলেও হাওয়ার মাধ্যমে তেজস্ক্রিয় পদার্থগুলো ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই যত দ্রুত সম্ভব সেখান থেকে দূরে সরে যাওয়া উচিত যাতে তেজস্ক্রিয় পদার্থগুলো শরীরের সংস্পর্শে না আসে।

শিল্ডিং: মোটা দেওয়ালের আড়ালে নিজেকে সরিয়ে নিয়ে যেতে হবে। দেয়ালকে রক্ষাকবচ হিসাবে ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে ভাল জায়গা বেসমেন্ট, টানেল এবং সাবওয়ে। এক্ষেত্রে আরও একটা পথের দিশা দিয়েছে মার্কিন সরকার, সেটা হল ব্লাস্ট শেল্টার। বিস্ফোরণের পর এই শেল্টার তাপ, আগুন এবং তেজস্ক্রিয়তার প্রাথমিক ধাক্কাটা সামলে দেয়।

সময়: পরমাণু বোমা বিস্ফোরণের পর প্রথম দুটো সপ্তাহে তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ অনেক বেশি থাকে। বিস্ফোরণস্থলের কাছাকাছি থাকলে নিজেকে নিরাপদ রাখতে দীর্ঘ দিন ঘরবন্দি থাকা উচিত।

না দেখা: পরমাণু বোমা বিস্ফোরণ হওয়ার পর যে আগুনের গোলার সৃষ্টি হয়, সেদিকে না তাকানোই ভাল। এতে দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

শুয়ে পড়া: সটান মাটিতে শুয়ে পড়লে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম। তবে যতটা সম্ভব নিজের মাথা ঢেকে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে।

গোসল করা: বিস্ফোরণের পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব গোসল করে নিন। তবে খেয়াল রাখবেন, গোসলের সময় দেহের ত্বক রগড়াবেন না। শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন না।

পোশাক: পোশাকে তেজস্ক্রিয় পদার্থ লেগে থাকে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরনের পোশাক খুলে ফেলুন। সেটা কোনও প্লাস্টিক ব্যাগে ভাল করে বেঁধে লোকালয় থেকে দূরে ফেলে দেয়ার ব্যবস্থা করুন।

মুখমণ্ডল মুছে ফেলা: খুব আলতোভাবে নাক, কান, চোখের পাতা ভিজে কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here