নিজের স্বাস্থ্যসনদ নিজে লিখেছিলেন ট্রাম্প!

0
49

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক চিকিৎসক হ্যারল্ড বোর্নস্টেইন দাবি করেছেন, ২০১৫ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য ‘অবাক করার মতো ভালো’ বলে যে চিকিৎসা সনদ দেওয়া হয়েছিল, সেটি তিনি লেখেননি। ট্রাম্প নিজেই সেটির নির্দেশনা দিয়েছিলেন। সিএনএন টেলিভিশনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

২০১৫ সালের ওই চিঠির বক্তব্য ছিল, ‘এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে যতো জন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন, তাদের সবার চেয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য ভালো। তার শারীরিক শক্তি ও কর্মক্ষমতা অসাধারণ। তার রক্তের চাপ ও গবেষণাগারের প্রতিবেদন অবাক করার মতো চমৎকার। পুরো বছর জুড়ে তিনি ৭ কেজি ওজন কমিয়েছেন। তার ক্যান্সারেরও কোনো লক্ষণ নেই। এমনকি জয়েন্ট সার্জারিও হয়নি। ওই সময় এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেছিলেন, আমি এ কারণে ভাগ্যবান যে, আমার শরীরে সেরা জিন রয়েছে।

তবে এ বিষয়ে বোর্নস্টেইন সিএনএন টেলিভিশনকে আরও বলেন, তাকে ট্রাম্প যেভাবে বলেছিলেন, তিনি শুধু সেভাবে চিকিৎসা সনদটি বানিয়েছিলেন। সেটি তার পেশাদার বিশ্লেষণ ছিল না। যদিও তার এই বক্তব্যের বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি হোয়াইট হাউজ।

ট্রাম্পের সাবেক এ চিকিৎসক আরো বলেন, ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে ট্রাম্পের দেহরক্ষী একদিন আমার অফিসে ‘অভিযান চালিয়ে’ চিকিৎসা সংক্রান্ত সব কাগজপত্র নিয়ে গেছে। কিন্তু বোর্নস্টেইন এতোদিন পরে এমন দাবি করছেন কেন- সেটি পরিষ্কার নয়।

এর আগে গত জানুয়ারিতে মানসিক সুস্থতা নিয়ে বিতর্কের জেরে দীর্ঘ সময় ধরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। এরপর হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক রনি জ্যাকসন বলেন, তার মস্তিষ্কের দক্ষতা নিয়ে আমার কোনো সন্দেহ নেই। সূত্র: বিবিসি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here