নিউইয়র্কে বিএনপির সমাবেশে সাধারণ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরীর দাবি

0
138

05282017_13_NY_BNPনিউইয়র্ক : রাজধানী ঢাকায় বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি না দেয়া এবং খুলনায় বিএনপি নেতাকে হত্যার নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে ২৬ মে শুক্রবার রাতে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি, আরাফাত রহমান কোকা স্মৃতি পরিষদ এবং তারেক পরিষদের সম্মিলিত উদ্যোগে এক সমাবেশ হয়। নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে মেজবান পার্টি সেন্টারের এই সমাবেশের প্রধান অতিথি যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতা আকতার হোসেন বাদল শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, ‘সরকার একদিকে গণতন্ত্রের কথা বলছে, অপরদিকে বিরোধী দলের সকল কর্মকান্ডে বিঘœ সৃষ্টি করছে। এ ধরনের আচরণে সরকার প্রতিনিয়ত নিজেকে স্বৈরাচার হিসেবে দাঁড় করাচ্ছে।

বাদল অভিযোগ করেন, ‘সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তির নেতৃত্বে নির্বাচন হলে অবশ্যই বিএনপি অংশ নেবে। বিএনপির আন্তর্জাতিক মিত্ররাও তেমনটি আশা করছেন।’ মার্কিন কংগ্রেসে পররাষ্ট্র বিষয়ক দুই প্রভাবশালী সদস্যের সাথে বৈঠকের উদ্ধৃতি দিয়ে বাদল আরো বলেন, ‘বিএনপির ভিশন-২০৩০কে তারা স্বাগত জানিয়েছেন। এখন ক্ষমতাসীন সরকারের উচিত হবে সকলের অংশগ্রহণে সাধারণ নির্বাচনের পথ তৈরী করা।’

বাদল বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি বিএনপি করলেও কংগ্রেসম্যান কিংবা সিনেটরদের সাথে বৈঠকের সময় বাংলাদেশকেই প্রাধান্য দেই। দলীয় স্বার্থের উর্দ্ধে রাখি বাংলাদেশকে। আজ যারা রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন, তাদেরও তেমন মনোভাব থাকা জরুরী।’সমাবেশ পরিচালনা করেন তারেক পরিষদের মহাসচিব ও বিএনপি নেতা জসীমউদ্দিন। আলোচনায় আরো অংশ নেন আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি পরিষদের সভাপতি শাহাদৎ হোসেন রাজু এবং সেক্রেটারি মনিরুল ইসলাম, নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাঈদুর রহমান সাঈদ, বিএনপি নেতা ও তারেক পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব আনিসুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ূন কবীর, সাইফুল ইসলাম অপু, সহ-সভাপতি কাজী মো. আসাদুল্লাহ প্রমুখ।

বক্তারা অবিলম্বে শেখ হাসিনার পদত্যাগ দাবি করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার গঠনের মধ্য দিয়ে মধ্যবর্তী নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার আহবান জানান। একইসাথে রাজনৈতিক প্রতিহিংসাপরায়নতার পথ পরিহার করে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারপার্সন তারেক রহমানে বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মামলা প্রত্যাহারের দাবিও জানান বক্তারা।