নিউইয়র্কে বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রীর মধ্যে ‘স্কুল-সামগ্রি’ বিতরণ

0
168

08282016_05_SCHOOL_SUPPLY-300x180নিউইয়র্ক: নয়া শিক্ষাবর্ষে নয়া ক্লাসে গমন উপলক্ষে নিউইয়র্কে বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে খাতা, কলম, কাগজ, পেন্সিল, স্কুল ব্যাগসহ অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রি বিতরণ করলো ‘বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কস।’ গত ৫ বছর এ সংগঠনের উদ্যোগে স্বল্প ও মাঝারি আয়ের পরিবারের স্কুলগামী ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে স্কুল-সামগ্রি বিতরণ করা হচ্ছে। এবারের অনুষ্ঠান হয় গত ২৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার। ৬ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী এসব সামগ্রি গ্রহণ করে। এ উপলক্ষে নিউইয়র্ক সিটির বাংলাদেশী অধ্যুষিত ব্রঙ্কসে ‘বাংলাবাজার এভিনিউ’র গোল্ডেন প্যালেস মিলনায়তনে শিশু-কিশোরদের মেলা বসেছিল। সাথে ছিলেন অভিভাবকরা। গত জুনের শেষ সপ্তাহে নিউইয়র্ক সিটির পাবলিক স্কুলের ফলাফল ঘোষণার পরই দীর্ঘ ছুটি ঘোষণা করা হয়। ৮ সেপ্টেম্বর খুলবে সকল স্কুল অর্থাৎ সেদিনই সকলে যাবে নয়া ক্লাসে নতুন পেশাকে। পাবলিক স্কুলের পাঠ্য পুস্তক বিনামূল্যে সরবরাহ করা হলেও খাতা, কলম, পেন্সিলসহ অত্যাবশ্যকীয় সবকিছু অভিভাবককেই দিতে হয়।

আয়োজক সংগঠন ‘বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কস’র সভাপতি সাহেদ আহমদের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সেবুল খান মাহবুবের পরিচালনায় এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অঙ্গরাজ্য পার্লামেন্টের এসেম্বলীম্যান লুইস সেপুলভেদা। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশী আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও প্রবাসের বিশিষ্ট আইনজীবি মো. এন মজুমদার, বাংলাদেশী আমেরিকান ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক সোসাইটির প্রেসিডেন্ট আবদুস শহীদ, মামুন’স টিউটোরিয়ালের প্রিন্সিপাল শেখ আল মামুন, বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোঃ শামীম মিয়া ও মাহবুব আলম, মদিনা মসজিদের প্রেসিডেন্ট মোঃ নাসির উদ্দিন, পার্কচেস্টার ফ্যামিলি ফার্মেসির স্বত্ত্বাধিকারী গৌরব কোঠারী।

ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে স্কুলের প্রয়োজনীয় সাজ-সরঞ্জাম বিতরণের কর্মসূচিকে অভিবাসী সমাজের জন্যে অনুকরণীয় একটি ঘটনা হিসেবে অভিহিত করে স্টেট এ্যাসেম্বলীম্যান সেপুলভেদা বলেন, ‘এর ফলে ছোট্টমণিরা উৎসাহিত হবে আরো ভালো রেজাল্ট দেখাতে। একইসাথে তারা তাদের মা-বাবার কালচার সম্পকেও চমৎকার একটি ধারণা পাচ্ছে।’ অন্যান্য অতিথিরাও এ প্রজন্মেও ছাত্র-ছাত্রীদের উৎসাহ দেয়ার জন্য এ উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here